অগ্নিকাণ্ড কমাতে প্রয়োজন সচেতনতা

গেল ২৯ ফেব্রুয়ারি বেইলি রোডের যে ভবনে আগুন লাগে, সেই গ্রিন কোজি ভবনের সঙ্গেও আমার অনেক স্মৃতি আছে।
অগ্নিকাণ্ড কমাতে প্রয়োজন সচেতনতা

প্রতিনিধিত্বশীল ছবি

রাজধানীর বেইলি রোড এলাকাটির সঙ্গে আমার সখ্যতা ১১ বছর ধরে। এই এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভিকানুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজে আমি প্রথম শ্রেণি থেকে পড়াশোনা করছি। গেল ২৯ ফেব্রুয়ারি বেইলি রোডের যে ভবনে আগুন লাগে, সেই গ্রিন কোজি ভবনের সঙ্গেও আমার অনেক স্মৃতি আছে।

বন্ধুরা মিলে একসঙ্গে এই ভবনে অনেক আড্ডা দিয়েছি আমরা। আমাদের স্মৃতি বহুল ভবনটি এক নিমিষেই পুড়ে ছাই হয়ে গেল, আমাদের সামনেই।

সেই আগুনে পুড়ে মারা যান অনেকে। তাদের মধ্যে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এক ম্যামও ছিলেন।

এই দৃশ্যটি আমার জন্য অনেক বেদনাদায়ক। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন স্থানে আগুনের ঘটনা শুনলেও, চোখের সামনে দীর্ঘদিন ধরে দেখা কোনো স্থানে আগুন লাগার এই ঘটনাটি আমার জন্য ছিল প্রথম। আমি এখনো এই পথটি দিয়ে যাওয়ার সময় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়ি।

গ্রিন কোজি ভবনে আগুন লাগার পরে দেশের আরও কয়েকটি স্থানে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে এই কয়েক দিনেই। কেন বারবার আগুন আমাদেরকে পোড়ায়? আমরা কি একটি ঘটনা থেকেও শিক্ষা নিতে পারছি না?

অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি নিয়ে আমাদের সবাইকে সচেতন হওয়া উচিত বলে মনে করি। কোথাও যাওয়ার আগে, সময় কাটানোর আগে আমাদেরকে সে স্থানের অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা সম্পর্কে জানা উচিত।

আমাদের মধ্যে এই বিষয়ে সচেতনতা তৈরি হলে, ব্যবসায়ী ও ভবন নির্মাতাদের টনক নড়তে পারে। আমাদের উদাসীনতার কারণেই এই সব মৃত্যু ফাঁদ তৈরি হয়।

প্রতিবেদকের বয়স: ১৬। জেলা: ঢাকা।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.

সর্বাধিক পঠিত

No stories found.
bdnews24
bangla.bdnews24.com