‘বাল্যবিয়ে কমিয়ে দেয় স্কুলের উপস্থিতি’

'খোঁজ করলে জানা যাবে পরীক্ষা অংশ না নেওয়া বেশির ভাগ শিক্ষার্থীদের বিয়ে হয়ে গেছে।'
‘বাল্যবিয়ে কমিয়ে দেয় স্কুলের উপস্থিতি’

প্রতিনিধিত্বশীল ছবি

আমি একটি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছি। কিছু দিন আগে একটা কাজে স্কুলে গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে দেখি অষ্টম থেকে দশম শ্রেণিতে ২০ থেকে ২৫ জন শিক্ষার্থী।

অথচ প্রতি বছর ষষ্ঠ শ্রেণিতে ৬০ থেকে ৭০ জন নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। আমি সব সময় দেখেছি আমাদের স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে যে পরিমাণ শিক্ষার্থী ভর্তি হয়, সে পরিমাণ শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় না।

খোঁজ করলে জানা যাবে পরীক্ষা অংশ না নেওয়া বেশির ভাগ শিক্ষার্থীদের বিয়ে হয়ে গেছে। এতে পড়াশোনা থেমে যায় তাদের।

আমার স্কুলটি যে ইউনিয়নে সে ইউনিয়নকে তিন থেকে চার বছর আগেই বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। যদি বাল্যবিয়ে মুক্ত ইউনিয়ন হয়েই থাকে তাহলে স্কুলের শ্রেণিকক্ষ কেন ফাঁকা থাকবে?

কোনো স্কুলের অষ্টম থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর সংখ্যা দেখলেই, সে এলাকার বাল্যবিবাহের পরিস্থিতি অনুমান করা যায় বলে আমার  মনে হয়।

একটা স্কুলেই যদি এই অবস্থা হয়, তাহলে বাংলাদেশের অন্য সব স্কুলে কত শিক্ষার্থীই না পড়াশোনা থেকে ঝড়ে পড়ছে। কতজনই না বাল্যবিয়ের মতো একটা কলুষিত অধ্যায়ে যুক্ত হচ্ছে।

প্রতিবেদকের বয়স: ১৭। জেলা: কুড়িগ্রাম।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.

সর্বাধিক পঠিত

No stories found.
bdnews24
bangla.bdnews24.com