খবরাখবর

ফাইয়াজ খান রিকি (১৫), ঢাকা

Published: 2017-06-10 19:59:22.0 BdST Updated: 2017-06-10 20:06:13.0 BdST

সংগৃহীত
‘অর্থ সংগ্রহে কষ্ট হয় কিন্তু যখন ভাবি এর ফলে কারও উপকার হবে তখন কষ্ট অনুভব হয় না।’

রাজধানীর একটি কলেজের সোস্যাল ক্লাবের একজন তরুণ এভাবেই জানালেন তার কষ্ট লাঘবের কথা।

বড় ভাইয়া আর আপুদের দেখে অনুপ্রাণিত হচ্ছে কিশোর-কিশোরীরাও। মাঝে মাঝেই উত্তরার রাস্তায় দেখা যায় কিছু কিশোর ও তরুণ রাস্তায় ঘুরে ঘুরে টাকা সংগ্রহ করছে।

নিজেদের সামর্থ্য নাই কিন্তু পরোপকারের নেশায় তারা পথে নেমেছে। এরপর আশেপাশের এলাকার বঞ্চিত ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে।

স্মাইল মোর, স্কার’স, হোপ নামের সেবামূলক সংগঠনগুলোর কাজ দেখে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরাও নিজেদের প্রচেষ্টায় করছে সেবার কাজ।

রাজউক ও মাইলস্টোন কলেজের সোস্যাল সার্ভিসেস ক্লাবের তরুণরা, সম্বলহীন মানুষদের আয়ের উৎস তৈরি করে দেওয়ার জন্য সহায়তা করছে।

পথশিশুদের শীতের কাপড় ও খাবার বিতরণ, দরিদ্র পরিবারকে রিকশা, ভ্যান কিনে দেওয়ার মতো কাজগুলো করছেন তারা।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত