বাবার তুলনা শুধু বাবা | hello.bdnews24.com
আমার কথা

নাবিহা শরিফ (১৩), ঢাকা

Published: 2021-06-21 22:50:36.0 BdST Updated: 2021-06-22 17:24:35.0 BdST

বাবা, আব্বা, আব্বু যে নামেই ডাকি না কেন, এই শব্দটি যেন আস্থার প্রতীক। 

কতটুকু আস্থা, সেটি তারাই অনুভব করতে পারে যাদের বাবা নেই। বাবাকে ছাড়া পৃথিবী অন্ধকারে ঢাকা। বাবা আমাদের জীবনে আলো হয়ে থাকেন, কখনো ছায়া হয়ে থাকেন, কখনো বা ভরসা হয়ে থাকেন। তার তুলনা তিনি নিজেই।

আমার বাবা পেশায় একজন সাংবাদিক। তিনিই আমাকে লেখালেখিতে প্রথম উৎসাহিত করেন। বাবা চান আমি বড় হয়ে যা হই না কেন, পাশাপাশি যেন একটু লেখালিখি করি। সৃজনশীল কাজের সঙ্গে যুক্ত থেকে আমি যেন প্রতিভার বিকাশ করতে পারি। এ নিয়ে তার চিন্তার শেষ নেই। আমি এখন দুই লাইন লিখতে পারি গুছিয়ে বাবার জন্যই।

একবার আমার এক প্রিয় শিক্ষকের মৃত্যুতে খুবই ভেঙে পড়েছিলাম আমি। কিছুতেই মেনে নিতে পারছিলাম না। বাবার কাছে স্যারকে নিয়ে গল্প করেছিলাম। তখন স্যারের স্মৃতিগুলো লেখার পরামর্শ দিয়েছিলেন। তার কথা অনুযায়ী আমি লিখেছিলামও। সেখান থেকেই আমার লেখালেখি শুরু। এরপর বাবা আমাকে নানা ভাবে সাহায্য করেছেন, পরামর্শ দিয়েছেন।

বাবা কখনো আমার গায়ে হাত তোলেননি। অবশ্য হাত তোলার কোনো দরকারই পরেনি। কারণ আমার কোনো অপরাধে বাবা আমাকে একটু বকা দিলেই আমি কেঁদে ফেলতাম। মায়ের কাছে গল্প শুনেছি ছোটেবেলায় বাবা একবার কয়েকদিনের জন্য বাইরে গিয়েছিলেন, তাই রাতে বাবাকে কাছে না পাওয়ায় আমি ওই কয়েকদিন বাবার ছবি জড়িয়ে ধরে ঘুমাতাম।

আমি বাবাকে এখনো আগের মতোই অনুভব করি, ভালোবাসি। আজ ‍আমি যে এই সমাজে মাথা উঁচু করে বাস করতে পারছি, পড়াশোনা করতে পারছি তার পেছনে আমার বাবার অনেক বড় অবদান রয়েছে। এই পৃথিবীর অন্য সবার মতো আমার বাবাও আমার কাছে পৃথিবীর সবচেয়ে সেরা বাবা।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত