আমার কথা

শিলা আক্তার মৌ (১৬), ঢাকা

Published: 2019-02-17 15:39:13.0 BdST Updated: 2019-02-17 15:47:46.0 BdST

দেশকে কতটুকু ভালোবাসেন? হয়তো উত্তর হবে সীমাহীন। আচ্ছা, আপনি আমি আমরা সবাই একটি সুন্দর দেশ এর প্রতিচ্ছবি মনের মধ্যে অংকন করি। তাই না?

আমরা অনেকেই আমাদের মৌলিক অধিকার নিয়ে কথা বলি, কাজ করি। তবে দেশের সৌন্দর্য রক্ষায় আমরা কতটুকু কাজ করি?

আজ দেশ উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে শুনেছি। চারিদিকে উন্নয়ন ঠিক! কিন্তু আমার চোখ তো উল্টো দেখে। দূষন, যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা, অনিয়ম।

আমরা সবসময় নিজেকে নিয়ে এতটা ব্যস্ত থাকি যে অন্য কোনো দিকে তাকানোর সময় পাই না। পরিবেশ, দেশ কোথায় চলে যাচ্ছে তা নিয়ে আমাদের মাথা ব্যথা নেই কারো। আমরা কী ভীষণ আত্মকেন্দ্রিক হয়ে উঠেছি।

সবসময় আমরা সরকার  আর প্রশাসনের কাঁধে দায় চাপিয়ে নিজেরা বেঁচে যেতে চাই। আচ্ছা সব দায় দায়িত্ব কি শুধু সরকার আর প্রশাসনের? আমাদের কি কোনো দায়িত্ব নেই? আমরাও তো এ দেশের নাগরিক। যদি সবাই একে অপরের দিকে আঙুল তোলেন তাহলে এর সমাধান হবে?

খুব ছোট বিষয় দিয়েই বোঝানো যাক। আমরা অনেকেই চিপসের প্যাকেট, পানির বোতল যেখানে সেখানে ফেলি। একবারও ভাবি না এতে আমার চলার জায়গাটাই নোংরা হচ্ছে।

হয়তো আপনি ফেলেন না, কিন্তু কেউ একজন ফেলেছে সেটা পরিষ্কার করাও আপনার দায়িত্ব বলেই আমার মনে হয়।

এভাবে সমস্ত কিছুতেই নিজের এগিয়ে আসতে হবে। আমরা এগোলেই দেশটা বদলাবে।

আমাদের আশেপাশে অনেক ছোটখাটো সংগঠন পরিবেশ রক্ষায় কাজ করে।

আমরা তাদের কাজ দেখে খুব তারিফ করি। ফেইসবুকে হাজার হাজার লাইক কমেন্টে ভরিয়ে দেই। আসলে কী দিনশেষে আমরা তাদের কাজটিকে নিজের মধ্যে ধারন করতে পারি? তাদের সঙ্গে নিজেদের সম্পৃক্ত করতে পারি?

আমরা বন্ধুরা যখন সবাই একত্রে আড্ডা দেই তখন দেখা যায় কেউ কেউ হয়তো বাদামের খোসা মাটিতে ফেলে। আমি ওগুলো তুলে নিই, কাগজ দিয়ে ব্যাগে জড়িয়ে রাখি।  ময়লা ফেলার জায়গা পেলে ফেলে দেই। এগুলো খুব ছোট ছোট ব্যাপার। আমাকে দেখে হয়তো আমার কোনো বন্ধু সচেতন হবে, পরশু তার কোনো বন্ধু। এভাবেই আমরা পরিবর্তন করব।

আমাদের দেশে অসংখ্য পর্যটক কেন্দ্র রয়েছে। আর অসংখ্য ভ্রমণ পিপাসু মানুষও রয়েছেন। তারা প্রকৃতির কোলে একটু শান্তি খুঁজতে কত শত মাইল পাড়ি দিচ্ছেন অথচ কষ্ট করে নিজের ব্যবহারের পর উচ্ছিষ্টটা প্রকৃতির কোলেই ফেলে আসছেন।

আমরা ঘুরছি, ছবি তুলছি, চেকইন দিচ্ছি আর আসার সময় জায়গাটা নোংরা করে রেখে আসছি। আমরা কতটা সচেতন বুঝুন এবার?

একসময় এই ঢাকাও ছিল একটি সবুজ সুন্দর শহর। অথচ আমরা, আমাদের অসচেতনতা এই শহরকে নষ্ট করেছে। আজ দূষণে, দুষণে আমার তিলোত্তমা ঢাকা হারিয়েছে তার রুপ।

পরিবর্তনটা আমাদের আনতে হবে। সেটা আসুক না আপনার আমার হাত ধরে! আমরা যেন আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের কাছে একটি বাসযোগ্য পৃথিবী উপহার দিয়ে যেতে পারি। 

 

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত