আমার কথা

ওমর ফারুক (১৬), ঢাকা

Published: 2017-06-20 20:18:45.0 BdST

আমার প্রিয় মানুষ আমার মা তারপর বাবা। মা বেশি প্রিয় কারণ তিনি আমাকে শাসন করেন কম আদর করেন বেশি। তবু বাবাকেই বলতে পারি, ভালোবাসি বাবা। কারণ তিনি রয়েছেন দূরদেশে।

মা আমার সব সমস্যার সুন্দর সমাধান দিতে পারেন।  মা-ই সারাক্ষণ পাশে থাকেন তাই তাকেই ভালোবাসি। কিন্তু বাবার সাথে তুলনায় নয়। কারণ বাবা তো কাছেই নেই!

সবাই বলে মা ছেলেদের আর বাবা মেয়েদের বেশি ভালোবাসেন। কিন্তু আমার কাছে আমার বাবা ও আমার মা দুজনেই আমার একলার।

বাবা ২০বছর ধরে দেশের বাইরে থাকেন। তাই আমি ছোটোবেলা থেকে বাবার আদর থেকে অনেকটাই দূরে। কয়েক বছর পরপর দেশে আসলেও কয়েক মাস থেকেই চাকরির জন্য বাবাকে চলে যেতে হয়। বেশি দিন বাবাকে পাশে পাই না।  

মা পাশে থাকেন বলে মা কে মিস করি না কিন্তু সব সময় বাবাকে মিস করি। সরাসরি বাবার আদর না পেলেও শাসন পেয়েছি অনেক। দেশে না থাকলেও দূর থেকেই শাসন করতেন ঠিক। এবং তা আমার মঙ্গলের জন্যই।

তারপরও আমি আমার বাবাকে খুব ভালবাসি। কৃতজ্ঞ তার প্রতি। কারণ আমার ভবিষ্যতের জন্য তিনি এত কষ্ট করে যাচ্ছেন। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে  স্ত্রী-সন্তান ছেড়ে দূর বিদেশে পড়ে রয়েছেন। কষ্ট করে টাকা রোজগার করে দেশে পাঠাচ্ছেন।

তবু আমি যখন আমার কোনো সহপাঠীকে দেখি, তার বাবার সাথে বাজারে যায়, ঘুরতে যায় তখন বাবাকে বেশি মিস করি কারণ আমার বাবা আমার পাশে নেই।

মনে পড়ে আমি যখন খুব ছোট তখন বাবার সাথে শুধু মাত্র চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা ঘুরতে গিয়েছিলাম। তখন আমি বাবার কাঁধে উঠে চিড়িয়াখানার বানরদের বাদাম খাওয়াইছি। এ কথা মনে পড়ে খুব।

তাই আমিও বাবার দেখানো পথেই চলছি। তাকে মান্য করছি।

প্রতিবছরই বাবা দিবস আসে যায়। কখনো বাবাকে পাশে পাই না। তাই এই দিবসে বাবাকে খুব বেশি কাছে পাওয়ার ইচ্ছা জাগছে। আমি কখনও মুখ ফুটে বলতে পারিনি, ‘বাবা তোমাকে ভালোবাসি’। বলেও কখনও বোঝাতে পারব না কতটা ভালবাসি তাকে। তাই শুধু বলব, ‘বাবা ভালবাসা নিও’। আমার কাছে আমার বাবা সেরা বাবা। আমি আমার বাবাকে নিয়ে গর্বিত।  

  

Print Friendly and PDF
সর্বাধিক পঠিত