বিশ্বজুড়ে

আজমল তানজীম সাকির (১৬), ঢাকা

Published: 2019-07-25 16:35:49.0 BdST Updated: 2019-07-25 16:35:49.0 BdST

নেপালের এক্রিয়েটিভ মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের প্রযোজনায় আয়োজিত আন্তর্জাতিক কুইজ অনুষ্ঠান ‘কুইজ ম্যানিয়া-৭ ওয়ার্ল্ডওয়াইড’ এর বাংলাদেশের বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজধানীর সরকারি বিজ্ঞান কলেজে এ বাছাইপর্ব আয়োজিত হয়।

চারশর বেশি প্রতিযোগী বাছাইপর্বে অংশ নেয়। দলগত এ কুইজে প্রতি দলে ছিল দুজন করে প্রতিযোগী। বাছাইপর্ব থেকে বিজয়ী হয়ে নেপালে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মূল পর্বে অংশ নেওয়ার জন্য  নির্বাচিত সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মো. আব্দুলাহ আস সামি এবং সৈয়দ তামজিদ তাজোয়ার।

বাংলাদেশ অডিশনে প্রথমে ৫০ টি বহুনির্বাচনী প্রশ্নের উত্তর খাতায় দেয় প্রতিযোগী দলগুলো। সেখানে সর্বোচ্চ সঠিক উত্তরদাতা চারটি দল বেছে নিয়ে করা হয় র‍্যাপিড ফায়াররাউন্ড। প্রত্যেক দলের হাতে ছিল এক মিনিট। সেই এক মিনিটে করা হয় নয়টি প্রশ্ন। সর্বোচ্চ সঠিক উত্তরদাতা পেয়ে যায় মূল পর্বে অংশ নেওয়ার টিকিট।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নেপালের প্রখ্যাত অভিনেতা ও কুইজ ম্যানিয়াঅনুষ্ঠানের মূলপর্বের সঞ্চালক রাজেশ হামাল, ‘এক্রিয়েটিভ মিডিয়া প্রাইভেট লিমিটেড’- এর প্রধান নির্বাহী হরি পোখরেল এবং সরকারি বিজ্ঞান কলেজের অধ্যক্ষ বনমালী মোহন ভট্টাচার্য।

রাজেশ হামাল বলেন, “বাংলাদেশ গত আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এ আসরের বাছাইপর্বেও এদেশের শিক্ষার্থীদের সাড়া দেখে আমি খুশি। এ প্রতিযোগিতা সব দেশের কিশোর-কিশোরীদের মাঝে এক সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করছে। এটি তাদের সামনে নতুন দুয়ার খুলে দিয়েছে।

কুইজ ম্যানিয়ার বাংলাদেশের কান্ট্রি কো-অর্ডিনেটর শেখ শরফুদ্দিন রেজা আলী চৌধুরী বলেন, “বাংলাদেশে এ অনুষ্ঠান সফলভাবে আয়োজনের জন্য আমরা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। অবশেষে আজ তা অনুষ্ঠিত হলো। আমি মনে করি কুইজ ম্যানিয়া প্রত্যেক দেশের শিক্ষার্থীদের মাঝে বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি সম্পর্কে ধারণা দিবে। সব মিলিয়ে বিশ্ব সম্প্রীতি গড়ে তোলার ক্ষেত্রেও ভূমিকা রাখতে পারে এ ধরণের আয়োজন। পরিশেষে বাংলাদেশের প্রতিযোগী দলের জন্য শুভকামনা।

কুইজ ম্যানিয়ার ইন্টারন্যাশনাল ফাইনাল রাউন্ড নেপালের কাঠমান্ডুতে অনুষ্টিত হবে চলতি বছরের ১২ অগাস্ট থেকে ২২ অগাস্ট পর্যন্ত। সব দেশের বিজয়ী শিক্ষার্থীরা টেলিভিশন শো রেকর্ডিংয়ে অংশ নেবে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা নেপালের পোখারা ও চিতওয়ানে ভ্রমণের সুযোগ পাবে।

বিজয়ী দলের আব্দুলাহ আস সামি বলে, “কুইজ ম্যানিয়া ৭ - ওয়ার্ল্ডওয়াইড এ নিজের বিদ্যালয় এবং সর্বোপরি নিজের দেশের প্রতিনিধিত্ব করার এই সুযোগ পাওয়াটা আমার জন্যে খুবই গর্বের একটি বিষয়।

বিজয়ী দলের আরেক সদস্য সৈয়দ তামজিদ তাজোয়ার বলে, “আমি কুইজিং জগতে যুক্ত রয়েছি ২-৩ বছর ধরে।

পৃথিবীর বিভিন্ন উন্নত দেশে একাডেমিক বোল এর আয়োজন হয় যা ছাত্রছাত্রীদের মেধা বিকাশে ভুমিকা রাখছে। কুইজ ম্যানিয়া বাংলাদেশের ছাত্রদের জন্য আন্তর্জাতিক কুইজ এর সুযোগ করে দিয়েছে। শতশত প্রতিযোগীর মাঝে আমি নির্বাচিত হতে পেরে আনন্দিত।

গত আসরে বাংলাদেশের নটর ডেম কলেজের দল চ্যাম্পিয়ন হয়ে অর্জন করেন পাঁচ লক্ষ নেপালি এবার চ্যাম্পিয়ন দল ১০ লক্ষ, প্রথম রানার-আপ লক্ষ দ্বিতীয় রানার-আপ লক্ষ নেপালি রূপি পাবে।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত