বিশ্বজুড়ে

আজমল তানজীম সাকির (১৪), ঢাকা 

Published: 2018-05-08 16:34:35.0 BdST Updated: 2018-05-08 16:34:35.0 BdST

শুক্রাণু এবং ডিম্বানু ছাড়াই ইঁদুরের দেহের দুই ধরণের স্টেম সেল দিয়ে পরীক্ষাগারে কৃত্রিম ভ্রূণ তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে ডাচ বিজ্ঞানীরা।

নেদারল্যান্ডসের ম্যাসট্রিচ ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক নিকোলাস রিভরন এবং তার দল মিলে তৈরি করেছে এ ভ্রূণ। 

ভ্রূণের বিকাশের প্রাথমিক রূপ ব্লাস্টোসিস্ট পর্যায়ের ভ্রূণের কাঠামো তৈরি করেছে তারা। মাইক্রোস্কোপে পরীক্ষাগারে তৈরি ভ্রূণকে দেখতে প্রকৃত ভ্রূণের  মতোই বলে জানানো হয়েছে।  

ইঁদুরের দেহের একদম প্রাথমিক অবস্থার দুইটি স্টেম সেল নেয়া হয়। সেটি দিয়ে তৈরি ব্লাস্টোসিস্ট পর্যায়ের ভ্রূণের কাঠামোটিকে একটি স্ত্রী ইঁদুরের গর্ভেও স্থাপন করা হয়।  

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদন থেকে জানা যায় শুক্রাণু এবং ডিম্বানুর নিষেকে তৈরি সাড়ে তিন দিনের ভ্রূণের যে  ধরণের পরিবর্তন হওয়ার কথা, এটিরও তেমনই হয়েছে। তবে শতভাগ সাফল্য আসেনি।

নিকোলাস রিভরন জানান, প্রকৃত ব্লাস্টোসিস্টের মতো হলেও ভ্রূণটি সুবিন্যাস্ত ছিল না। 

কোনো প্রাণির ক্লোন তৈরি নয়, কেন ভ্রুণের প্রাথমিক অবস্থাতেই গর্ভস্রাব হয়ে থাকে তা বোঝার জন্যই এ ভ্রূণ কাজে লাগানো হবে বলে জানানো হয়।

তাদের এ গবেষণা পত্রটি আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান জার্নাল ন্যাচারেও প্রকাশিত হয়েছে। 

বিবিসিকে নিকোলাস রিভরন বলেন, "আমরা এখন প্রচুর পরিমাণে এমন ভ্রূণ তৈরি করতে পারব এবং এগুলো নিয়ে বিস্তারিত গবষেণা করতে পারব। কেন কিছু কিছু ভ্রূণ সংস্থাপনে ব্যর্থ হয় তা বুঝতে এটি আমাদের সহায়তা করবে এবং এটি বন্ধ্যাত্ব দূরের ঔষধ তৈরির গবষেণাতেও আমাদের সাহায্য করবে।" .

ভ্রূণ ডিম্বনালী থেকে জরায়ুতে পৌঁছানোর ভ্রূণ জরায়ুর প্রাচীরের সংলগ্ন হতে থাকে। জরায়ুর প্রাচীরে ভ্রূণের সংযুক্তিকে ভ্রূণ সংস্থাপন বা গর্ভধারণ বলা হয়ে থাকে।

ভ্রূণ সংস্থাপন না হওয়ার কারণে অনেকেরই গর্ভস্রাব হয়ে থাকে। এর কারণ এখনো পুরোপুরি না জানা গেলেও ধারণা করা হয় ভ্রূণের অস্বাভাবিক বিকাশই এর জন্য দায়ী। স্টেম সেল দিয়ে তৈরি কৃত্রিম ভ্রূণ যেন এ নিয়ে গবেষণার নতুন দুয়ার খুলে দিল। 

ইঁদুরের মতো মানবদেহের স্টেম সেল নিয়ে এ কাজ করা সম্ভব কিনা তা নিয়ে ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে আলোচনা। তবে যুক্তরাজ্যের ফ্রান্সিস ক্রিক ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক রবিন লভেল-ব্যাজ মনে করেন, এ উপায়ে মানবভ্রূণের কাঠামো তৈরি করার সম্ভাবনা অনেক দূরবর্তী।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • অপরূপ শ্বেতপদ্ম (ভিডিওসহ)

    ধান, নদী, খালের অপরূপ সৌন্দর্যে পূর্ণ বরিশাল। ছল ছল শব্দে নদীর বয়ে চলা, চোখ জুড়ানো ধানের ক্ষেতে প্রজাপতির লুকোচুড়ি খেলা, মৃদু বাতাসে দু’একটা শিরীষ পাতা বা হিজলের লালচে ফুলের পানিতে ঢলে পড়া আবার গাঙ ফড়িং এর চঞ্চল উড়াউড়ি, তার ভেতরে পদ্মপাতায় সাপ আর ভ্রমরের খেলা কি নেই এই বরিশালে। যেখানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কড়া নাড়ে সব বাঙালির হৃদয়ে।

  • ফরিদপুরের শিশু পার্ক (ভিডিওসহ)

    ফরিদপুরের শেখ রাসেল শিশুপার্কটি জেলার শিশুদের একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র।

  • মহাস্থান গড়ের সবজি (ভিডিওসহ)

    ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে কাঁধে অথবা ভ্যানে করে বগুড়া সদর, শিবগঞ্জ ও এর আশেপাশের এলাকা হতে চাষিরা সবজি নিয়ে হাজির হন মহাস্থান বাজারে।