অন্য চোখে

রুসাফা শারমিন্‌দ শানহা (১৬), ঢাকা

Published: 2019-10-05 19:00:30.0 BdST Updated: 2019-10-05 19:01:49.0 BdST

ছবি: ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত
বর্তমান সময়ে সারাবিশ্বের কার্টুনপ্রেমীদের কাছে ইংকটোবার শব্দটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে।

ইংকটোবার মূলত একটি একমাসব্যাপী ছবি আঁকার চ্যালেঞ্জ যেখানে প্রতিদিন বিভিন্ন বিষয়কে কেন্দ্র করে কালি ও কলমে ছবি আঁকতে হয় এবং #inktober লিখে অনলাইনে পোস্ট করতে হয়।

প্রতিটি মানুষের নিজস্বতা আছে। মানুষের মনে আছে অন্তর্দৃষ্টি যা দিয়ে সে পৃথিবীকে নতুন করে দেখে। আর আইনস্টাইন যেহেতু বলেই দিয়েছেন যে কল্পনা জ্ঞান হতে গুরুত্বপূর্ণ, তাই সৃজনশীল ও চিন্তাপ্রসূত উপায়ে একটা স্বাভাবিক জিনিসকে নতুনরূপে উপস্থাপন করতে পারার দক্ষতা অর্জনই ইংকটোবারের আলোচ্য বিষয়।

প্রতিবছর সেপ্টেম্বরের ১তারিখে ইংকটোবার কমিটি ৩১দিনের ৩১ টি প্রম্পট নির্ধারণ করে দেয়। আঁকিয়েদের মধ্যে যারা চ্যালেঞ্জটি গ্রহণ করতে চান তারা নিজেদের সৃজনশীলতা দিয়ে প্রদত্ত প্রম্পটগুলোকে নতুনভাবে সাজাতে পারে এবং অনলাইনবিশ্বকে নিজের প্রতিভা দেখাতে পারে। 

আঁকিয়েদের সৃজনশীলতা ও আঁকার দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কার্টুনিস্ট জেক পার্কার সর্বপ্রথম ২০০৯ সালে 'ইংকটোবার' ধারণাটি সামনে নিয়ে আসেন। শুরুতে অংশগ্রহণ কম থাকলেও ধীরে ধীরে বেড়েছে জনপ্রিয়তা।

২০১৪ সালে #inktober2014 হ্যাশট্যাপে প্রায় ১০০,০০০ টি কালিচিত্র টুইটারে জমা পড়েছিল! বাংলাদেশে ২০১৮ সালে 'কার্টুন পিপল' নামক সংগঠন রাজধানীর ইএমকে সেন্টারে তাদের আঁকিয়েদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আঁকা কালিচিত্রের একটু বিশাল প্রদর্শনী করেছিল।

ছবিটি কালি দিয়ে হতে হবে, এটিই ইংকটোবারের একমাত্র আবশ্যক নিয়ম। প্রম্পটগুলো দেওয়া হয় যাতে আইডিয়ার অভাবে কারো আঁকা বন্ধ করতে না হয়।

নিজের পছন্দের কোনো বিষয়ে যদি আঁকতে চায় তবে তার পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে। অনলাইনে পোস্ট যদি কেউ না করতে চায় তবে সে চাইলেই বাড়ির দেয়ালে, ফ্রিজের উপর ঝুলিয়ে রাখতে পারে। তবে, কাউকে না কাউকে তা দেখতে হবে। সাধারণত প্রতিদিন একটা ছবি আঁকতে হয় এবং সবাইকে দেখাতে হয়। কিন্তু কেউ চাইলেই ছবিগুলো জমা করে ১৫ দিনে অথবা ৩১ তম দিনে আঁকা সব ছবি পোস্ট করতে পারে।

কেবল শুরু হয়েছে অক্টোবর মাস। বাড়িতে প্রত্যেকেরই খাতা কলম তো থাকেই। তবে আজই লেগে পড়তে পারো ইংকটোবার চ্যালেঞ্জটি নিয়ে। আঁকার হাত ভালো হোক বা না হোক, শেখার ও দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য এর থেকে বড় সুযোগ আর কী হতে পারে?

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত