স্কুলপ্রশ্নে ফের নারীপোশাককে আক্রমণ | hello.bdnews24.com
খবরাখবর

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

Published: 2015-06-09 15:11:25.0 BdST Updated: 2015-06-10 10:42:27.0 BdST

হলিক্রসের পর যৌন নিপীড়নের জন্য মেয়েদের পোশাককে দায়ী করে আবার পরীক্ষায় প্রশ্ন হয়েছে ঢাকার আরেকটি স্কুলে।  

এই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির এক পরীক্ষার্থী জানায়, মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা (সৃজনশীল) এর পরীক্ষায় এই প্রশ্ন হয়।

ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অর্ধবার্ষিক এই পরীক্ষার ৮ নং প্রশ্নে লেখা হয়, 'ফারিয়া আইডিয়াল স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী। সে পোশাক পরিচ্ছদ ও চলাফেরায় অতি আধুনিকতার ছাপ ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করে। স্কুলে ও কোচিং এ যাওয়ার সময় এলাকার বখাটে ছেলেরা তার পিছু নেয়। বাধ্য হয়ে তার মা নিজে বা অন্যকারো সাথে তাকে কোচিং এ পাঠান। ধর্মীয় শিক্ষক শারমিন আপা বললেন, নারী পুরুষ শালীনতার সঙ্গে চললে এবং শালীন পোশাক পরলে অনেক অঘটন থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।'

৮ নং প্রশ্নের ঘ নম্বরে বলা হয়েছে, ফারিয়া কীভাবে চললে বখাটে ছেলেদের হাত থেকে বাঁচতে পারে?

ওই ছাত্রের মতে, দিবা শাখার প্রায় তিনশ শিক্ষার্থী এই প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়েছে। তবে প্রভাতি শাখায় একই প্রশ্নে পরীক্ষা হয়েছে কিনা তা জানে না। 

এর আগে হলি ক্রস উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির প্রথম সাময়িকীর ইসলাম ধর্ম (সৃজনশীল) পরীক্ষায় যৌন নির্যাতনের জন্য নারীর পোশাককে দায়ী করে প্রশ্ন করা হয়।

শিক্ষার্থীরা এ নিয়ে আপত্তি জানালে গত ২৫ মে এই প্রশ্নপত্রটি নিয়ে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে প্রতিবেদন হয়।

ওই প্রতিবেদন প্রকাশের পর স্কুল কর্তৃপক্ষ দু:খ প্রকাশ করে। পাশাপাশি ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, শিগগিরই সব বোর্ডের চেয়ারম্যানদের সঙ্গে আন্তঃবোর্ড বৈঠকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, “ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে এ ধরনের বিষয় পরিহার করা উচিত ছিল। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যারা প্রশ্ন করেন বোর্ড থেকে তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়। শিক্ষকরা সিগনেচার দিয়ে যান সে নির্দেশনায়। তারা এ সব জানেন না তা নয়, ট্রেইনিংয়ে এসব বিষয় নিয়ে প্রচুর আলোচনা হয়। এরপরও প্রশ্ন সংক্রান্ত বিষয়ে বিপত্তি ঘটে।”

তবে এ ব্যাপারে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত