মূল্যায়নের ভিত্তিতে ফলাফল: কী বলছে শিক্ষার্থীরা (ভিডিওসহ) - hello
খবরাখবর

তাসনুভা মেহ্‌জাবীন (১৩), ঢাকা

Published: 2021-01-22 17:11:21.0 BdST Updated: 2021-01-22 17:11:50.0 BdST

প্রচলিত নিয়মের বদলে বিকল্প উপায়ের মূল্যায়নকে শিক্ষার্থীরা কীভাবে দেখছে সে প্রসঙ্গে কয়েকজনের সঙ্গে কথা হয় হ্যালোর।

অধিকাংশের কথায় একই সুর পাওয়া গেলেও অনেকে ভিন্ন মতামতও জানিয়েছে।

রাজধানীর একটি স্কুলের শিক্ষার্থী মারিয়ার সঙ্গে কথা হলে সে বলে, "বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে আমরা অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে মূল্যায়িত হয়ে যেভাবে নতুন শ্রেণিতে উন্নীত হয়েছি আমার মনে হয়ে অন্যান্য বছরের তুলনায় আমরা পূর্ণ শিখনফল অর্জন করতে সক্ষম হই নি। কেননা আগে আমরা যেভাবে সম্পূর্ণ বছর পড়াশোনা করে বার্ষিক পরীক্ষার মাধ্যমে নতুন শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হতাম সেটা পূর্ণ শিখনফল অর্জনে সহায়ক হতো।”

ইয়াকিন নামের একজন শিক্ষার্থী বলে, "প্রথম বর্ষ থেকে বার্ষিক পরীক্ষা দিয়ে উঠতে পারিনি। তাই প্রথম বর্ষে কতটা পড়াশোনা করেছি, কেমন প্রস্তুতি সেটা যাচাই করতে পারিনি। আর দ্বিতীয় বর্ষে উঠে তো কোনো ক্লাসই পাইনি। অনলাইনে ক্লাস হলেও হয়তো সবাই সে সুবিধাটা পায়নি। মূলত প্রস্তুতি তাই খুব ভালোও না আবার একেবারে খারাপও না।

“আর পরীক্ষার ব্যাপারে বলতে চাই যে তা যেন যথাসম্ভব সহজভাবে নেওয়া হয়। কারণ গ্রাম-মফস্বলের শিক্ষার্থীরা অনলাইনের ক্লাসের সুযোগ না পেয়ে হয়তো পিছিয়ে আছে। তাই সরকারের কাছে আবেদন সব পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবং শিক্ষার্থীদের জন্য উপকারী সিদ্ধান্তই যেন নেওয়া হয়, আমি সরকারের সিদ্ধান্তের সাথে আছি।"

মীম নামের আরেক শিক্ষার্থী বলে, "প্রতিবছর বছরের প্রথম দিন আমরা স্কুলে গিয়ে শিক্ষকদের কাছ থেকে নতুন বই নেই যেটা একটা অন্য রকম অনুভূতি। কিন্তু এ বছর সে বইটা ঘরে বসে নিতে হয়েছে তাই মন খারাপ রয়েছে।"

অনলাইন ক্লাস খুব একটা ফলপ্রসূ নয় বলে জানাল অনুশা নামের আরেক শিক্ষার্থী।

ও বলে, “এজন্য আমার অনেক ঘাটতি থেকে গেছে, তাই সামনে অনেক পরিশ্রম করতে হবে বলে মনে করি।"

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত