কোভিড ১৯: বেড়েছে প্লাস্টিক কাপের ব্যবহার (ভিডিওসহ) | hello.bdnews24.com
খবরাখবর

রাফসান নিঝুম (১৭), ঢাকা

Published: 2020-12-31 21:47:54.0 BdST Updated: 2020-12-31 21:49:14.0 BdST

করোনাভাইরাসের প্রভাবে কাঁচের কাপে চা পানের পরিবর্তিতে বেড়েছে একবার ব্যবহার যোগ্য প্লাস্টিকের কাপের ব্যবহার।

বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন দোকানে দেখা যায়, গ্রাহকেরা চা কিংবা পানির মতো তরল পাণীয় পানের ক্ষেত্রে একবার ব্যবহার যোগ্য প্লাস্টিক কাপ ব্যবহার করছে। আবার অনেকের ব্যবহার করছেন কাঁচের কাপই।

পরিবেশের জন্য অন্তত ক্ষতিকর এই প্লাস্টিক হলেও মানুষ নিজেদের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা চিন্তা করে,  কাপ ব্যবহার করছে। কিন্ত এতে ঘটতে পারে হিতে বিপরীত।

আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অব মেডিসিনের মুখ্য গবেষকদের মতে গবেষণায় দেখা গেছে, প্লাস্টিকের কাপ বানাতে সাধারণত যে যে উপাদান ব্যবহার করা হয়, সেগুলি বেশি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে ক্লান্তি, হরমোনের ভারসাম্যতা হারানো, মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমে যাওয়াসহ একাধিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

মারুফ হোসেন নামের এক চা বিক্রেতা বলেন, “কাঁচের কাপেও খাচ্ছে। অনেকে ওয়ান টাইম কাপে খাচ্ছে। আগে খাইতো না। এখন করোনার কারণে হয়তো মানুষ একটু চাচ্ছে যে একজনের জিনিস যেন আরেকজনের না খাওয়া লাগে সেই ক্ষেত্রে।”

আরেক বিক্রেতা মোশাররফ বলেন, “মানুষ তো চা খাইতে চাইতেছে ওয়ান টাইমে। কিন্ত আমরা যেই কাঁচের কাপে দিতেছি সেইটাতে খাইতে চায় না। খাইতে যখন চায় না, তখন কী করমু? বাধ্য হইয়াই ওয়ান টাইম।”

চাকুরিজীবি সাজ্জাদ হোসেন শোভন বলেন, “কাঁচের কাপে তো দেখা যায় এখন অনেক রকম মানুষ খায়। দেখা যায় একজনের ভিতরে একেক রকম সমস্যা থাকতে পারে। এই কারণে প্লাস্টিক কাপটা হচ্ছে ওয়ান টাইম ইউজ৷ ওয়ান টাইম ইউজে খাইলে নিজের একটা সেটিসফিকশন থাকে।”

বিশেষজ্ঞদের মতে, মানবদেহে এই রাসায়নিকের নিয়মিত প্রবেশে শ্বাসকষ্ট, টাইপ ২ ডায়াবিটিস, অটিজম, ব্রেস্ট ক্যানসারসহ নানা রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়াও ব্যবহারের পর যত্রতত্র ফেলে দেওয়ায় বাড়ছে পরিবেশ দূষণ।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত