কৈশোরকালীন পুষ্টি কার্যক্রম (ভিডিওসহ) - hello
খবরাখবর

সানজিদুল ইসলাম (১৬), ভোলা

Published: 2020-11-30 21:14:20.0 BdST Updated: 2020-11-30 21:16:00.0 BdST

ইউনিসেফের সহযোগিতায় মহিলা ও শিশুবিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত "এক্সেলেরাটিং প্রটেকশন ফর চিল্ড্রেন (এপিসি) প্রকল্প" থেকে পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ পেয়ে নিজ গ্রামের কিশোর-কিশোরীদের নিয়ে এ কর্মশালা শুরু করছে আরজু মনি নামের এক কিশোরী।

চলতি মাসে চরফ্যাশন উপজেলার জিন্নাগড় ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর ফরাজী বাড়িতে প্রথম কর্মশালাটি শুরু করে সে।

এতে ১৫ জন কিশোরী অংশগ্রহণ করে। কর্মশালায় কৈশোরকাল, কৈশোরকালীন পুষ্টির গুরুত্ব, খাদ্য ও পুষ্টি ইত্যাদি নিয়ে কিশোর-কিশোরীদের ধারণা দেয় সে।

কর্মশালায় অংশ গ্রহণকারী লিজা নামের এক কিশোরী বলে, "আজকে আমরা ক্লাবে এসে জানতে পারলাম খাদ্য কী, পুষ্টি কী, খাদ্যের ছয়টি উপাদান কী কী, আমাদেরকে এই সময়ে কোন কোন খাবার বেশি খেতে হবে।"

অপি নামের আরেক কিশোরী বলে, "আমি আজকে ক্লাবে এসে শিখেছি কৈশোরকাল কী ও কাকে বলে এবং কৈশোরকালে পরিবর্তনসমূহ।"

শারমিন নামের আরেক কিশোরী বলে, "কৈশোরকালীন পুষ্টি, কিশোর কিশোরীদের কোন কোন খাবার খেতে হবে এবং খাদ্যের পুষ্টি সম্পর্কে জানতে পারলাম।"

আরজু মনি বলে, "প্রতি বৃহস্পতিবার আমাদের ক্লাবে সাপ্তাহিক মিটিং হয়। আমরা সেখানে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করি। আজকের বিষয় ছিল কৈশোরকাল কী, কৈশোরকালীন পুষ্টির গুরুত্ব। কৈশোরকালে অপুষ্টি রোধে আমাদের কোন ধরনের খাবার খাওয়া উচিত এ বিষয়ে আজকে আলোচনা করেছি।"

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার জিন্নাগড় ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর ফরাজীর বাড়িতে সে প্রথম কর্মশালাটি পরিচালনা করে। এতে ১৫ জন কিশোরী অংশগ্রহন করে। কৈশোরকাল কী, কৈশোরকালীন পুষ্টির গুরুত্ব, খাদ্য ও পুষ্টি ইত্যাদি নিয়ে কিশোর-কিশোরীদের ধারণা দেয় সে।

লিজা নামে এক কিশোরী বলে, "আজকে আমরা ক্লাবে এসে জানতে পারলাম- খাদ্য কী, পুষ্টি কী, খাদ্যের ৬টি উপাদান কী কী, আমাদেরকে এই সময়ে কোন কোন খাবার বেশি খেতে হবে।"

ওপি নামের আরেক কিশোরী বলে, "আমি আজকে ক্লাবে এসে শিখেছি কৈশোরকালে দুই ধরণের পরিবর্তন ঘটে- শারীরিক ও মানসিক পরিবর্তন। শারীরিক পরিবর্তন এবং মানসিক পরিবর্তনগুলো কী কী এবং কোন খাদ্যে কী পরিমাণ পুষ্টি রয়েছে আমরা এটাও শিখেছি।"

শারমিন নামের এক কিশোরী বলে, "কৈশোরকালীন পুষ্টি, কিশোর-কিশোরীদের কোন কোন খাবার খেতে হবে এবং খাদ্যের পুষ্টি সম্পর্কে জানতে পারলাম।"

আরজু মনি হ্যালোকে বলে, "প্রতি বৃহস্পতিবার আমাদের ক্লাবে সাপ্তাহিক মিটিং হয়। কৈশোরকালে অপুষ্টিরোধে আমাদের কোন ধরনের খাবার খাওয়া উচিত এ বিষয়ে আজকে আলোচনা করেছি।"

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত