চরফ্যাশনে পুষ্টি প্রশিক্ষণ কর্মশালা (ভিডিওসহ) - hello
খবরাখবর

সানজিদুল ইসলাম (১৬), ভোলা

Published: 2020-11-21 21:35:08.0 BdST Updated: 2020-11-22 00:06:23.0 BdST

ভোলার চরফ্যাশনে সুবিধাবঞ্চিত কিশোর কিশোরীদের নিয়ে কৈশোরকালীন পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা হয়েছে।

জাতীসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের সহযোগিতায় মহিলা ও শিশুবিষয়ক অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত এক্সেলারেটিং প্রটেকশন ফর চিল্ড্রেন (এপিসি) প্রকল্পের অধীনে কোস্ট ট্রাস্ট নামের একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করে।

১০  ও ১১ নভেম্বর চরফ্যাশন ম্যানেজমেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টার (সিএফএমটিসি) এ আয়োজিত দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শোভন বসাক।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় দুইটি ধাপে চরফ্যাশন উপজেলার ৫৭টি কিশোর-কিশোরী ক্লাব হতে মোট ১১৪ জন অংশ নেয়।

প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া কিশোরী আরজু মনি বলে, "সুষম খাদ্য কী এবং সুষম খাদ্যের প্রয়োজনীয়তা, পুষ্টি, বিএমআই, বিএমআই কীভাবে নির্ণয় করতে হয় শিখেছি।"

আরেকজন কিশোরী মোসা. রিপা বলে, "কীভাবে একটা শিশু পরিপূর্ণভাবে বেড়ে উঠে, কৈশোরকালীন পুষ্টিকর খাবার, ভিটামিনের উৎস, আমাদের (কিশোর-কিশোরীদের) কোন রকমের খাবার খেতে হবে ও কিশোর-কিশোরীদের সাপ্তাহিক একটা করে আয়রন ফলিক এসিড বছর জুড়ে খেতে হবে এগুলো জানতে পারলাম।"

তরিকুল ইসলাম নামের আরেকজন পিয়ার লিডার বলে, "আমরা এখানে কৈশোরকালীন স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে জেনেছি, কীভাবে কৈশোরকালীন স্বাস্থ্যকে সুরক্ষিত রাখা যায় তা জেনেছি। এখন আমরা আমাদের অ্যাডোলসেন্ট ক্লাবগুলোতে গিয়ে এসকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করব এবং সকল কিশোর-কিশোরীদেরকে এগুলো সম্পর্কে জানাব।"

কৈশোরকালীন পুষ্টি প্রশিক্ষণ কর্মশালাটি পরিচালনা করেন ইউনিসেফের ডিস্ট্রিক্ট নিউট্রিশন কো-অর্ডিনেটর নাহিদা ইসলাম আঁখি।

তিনি বলেন, "আজকের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কিশোর-কিশোরীরা তাদের পুষ্টি অবস্থাকে নির্ণয় করে নিজের পুষ্টি অবস্থা যাচাই করতে পারবে, তাদের বন্ধু, কমিউনিটি ক্লাবের যে অন্যান্য মেম্বারা আছে তাদেরও পুষ্টি অবস্থা নির্নয় করতে পারবে।"

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত