খবরাখবর

রাফসান নিঝুম (১৭), ঢাকা

Published: 2019-11-30 19:53:02.0 BdST Updated: 2019-11-30 20:01:15.0 BdST

আগে গ্রামে ঘুরে ঘুরে সাপ খেলা দেখিয়ে, বাতের ব্যথা, দাঁতের ব্যথার ‘ওষুধ’ বেচে জীবিকা নির্বাহ করলেও বর্তমানে এর কদর নেই বলে পেশা বদলাতে বাধ্য হচ্ছে বেদে সম্প্রদায়ের লোকেরা।

সাভারের অমরপুর, পোড়াবাড়ি, কাঞ্চনপুর ও বক্তারপুর এলাকা নিয়ে বেদে পল্লী। যেখানে প্রায় ১৫ হাজার বেদের বসবাস।

সম্প্রতি নিজেদের জীবন যাপন নিয়ে হ্যালোর সঙ্গে কথা বলেন বেদে নারীরা।

এক বছর ধরে মুদি দোকান দিয়েছে ঊর্মি খাতুন। তিনি বলেন, “মানুষের কাছে টাকা চাইলে অনেকে অনেক কথা কয়। তাই দোকান চালাই। এখান থেকে মাসে দশ থেকে পনের হাজার টাকা আয় হয়।”

বেদে পেশার চেয়ে দোকান ব্যবসাকেই ভালো মনে করছেন হাসিনা বেগম নামের আরেক নারী। তিনি বলেন, “আগে সাপের খেলা দেখাইতাম বাড়ি বাড়ি ঘুরে। সিংগা লাগাইতে ভালো লাগে না। তাই দোকান করি। এটাই করে যেতে চাই সব সময়।”

দুই বছর ধরে দোকানে কাজ করেন রহিমা বেগম। তিনি বলেন, “এই দোকানকে ঘিরেই আমাদের সংসার চলে। ছেলে মেয়ে নিয়ে কষ্ট করে জীবন চালাচ্ছি।”

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত