খবরাখবর

মধুপর্ণা ধর গুপ্ত শ্রেষ্ঠা (১৩), নেত্রকোণা

Published: 2018-11-03 19:21:57.0 BdST Updated: 2018-11-03 19:21:57.0 BdST

নেত্রকোণায় গারো পাহাড়ের দুর্গম অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর হাজং সম্প্রদায়ের মেয়েরা শিক্ষায়  দিন দিন পিছিয়ে পড়ছে বলে মনে করেন হাজং সম্প্রদায়ের নেতারা।

হাজং নেতা স্বপন হাজং বলেন, নেত্রকোণার দুর্গাপুর ও কলমাকান্দায় গারো পাহাড়ের দুর্গম এলাকার গ্রামগুলোতে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর হাজং সম্প্রদায়ের মেয়েরা লেখাপড়ায় এগুতে পারছে না।

“পারিবারিক নানা সমস্যায় এই মেয়েদের বড় একটা অংশ মাধ্যমিকের গণ্ডিই পেরোতে পারছে না।”

বিদ্যালয়ে যাওয়ার  ইচ্ছা থাকলেও স্কুলে থাকতেই বিয়ে দেওয়া আর পরিবারের আর্থিক অক্ষমতার জন্যে তারা পড়ালেখা করতে পারছে না বলে জানান তিনি।

দুর্গাপুরের আগার অনির্বাণ শিক্ষা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক এটিএম হারুন অর রশিদ বলেন,  অর্থনৈতিক দৈন্যতা, অভিবাবকদের অসচেতনতার কারণে স্কুলে হাজং মেয়েদের ঝড়ে পড়ার সংখ্যাটা বেশি।

তবে সেখানের গারো জনজাতির মেয়েরা শিক্ষায় এগিয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

দুর্গাপুরের বিরিশিরি মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরভি মান্দা বলেন, অদম্য ইচ্ছা আর সরকারি-বেসরকারি সহযোগিতায় এখানে গারো জনজাতি মেয়েরা শিক্ষা দিন দিন এগুচ্ছে।

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ওয়ালী উল্লাহ বলেন, গারো মেয়েদের মতো হাজং মেয়েদেরও শিক্ষায় এগিয়ে নিতে স্থানীয় প্রশাসন  কাজ শুরু করেছে।

 

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত