খবরাখবর

মো. আলাউদ্দীন (১৭), পটুয়াখালী

Published: 2018-07-03 16:37:05.0 BdST Updated: 2018-07-03 16:40:57.0 BdST

বাণিজ্যিকভাবে সাপের বিষ উৎপাদনে সাপের খামার গড়ে তুললেও সরকারি অনুমোদন না মেলায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন আ. রাজ্জাক বিশ্বাস নামের এক খামারি।

তিনি পটুয়াখালী সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া ইউনিয়নের নন্দিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি জানান, দীর্ঘ ১৮ বছরে খামারের পেছনে প্রায় ৮০ লক্ষ টাকা খরচ করেও খামারের অনুমোদন না পাওয়ায় বিষ সংগ্রহ ও বিক্রি করতে পারছেন না।

জানা গেছে, তিনি ১৯৯৯ সালে এইচএসসি পাস করার পর সৌদি আরবে যান। সেখানে একটি স্টুডিওতে চাকরি নেন। সেখানে এক খামার দেখে এক পর্যায়ে সাপের খামার গড়ার চিন্তা মাথায় আসে। ২০০০ সালে দেশে ফিরে স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত একটি কিং কোবরা ও ২৪টি ডিম দিয়ে গ্রামে সাপের খামার শুরু করেন।

বর্তমানে নাজা নাজা, নাজা কিউটিয়া, পাইথন ও কিং কোবরা এই চার প্রজাতির প্রায় ২৫০টি বিষধর সাপ রয়েছে তার খামারে।

খামার তৈরির পর থেকে খামারে বিষ সংগ্রহের অনুমোদনের জন্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরেছেন আব্দুর রাজ্জাক। তবে এতদিনেও মেলেনি অনুমোদন।

তিনি বলেন, “খামারে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন দিতে পারছি না। অন্যদিকে আর্থিক সংকট পরিচালনা ও সাপের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়েও হতাশায় আছি।”

 

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • আমার ভালোবাসা

    মানুষের জীবনে নিজের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হলো তার নাম। নাম দিয়েই আমরা একজন থেকে আরেকজনকে আলাদা করে চিনতে পারি। আর নিজের নাম ভালোবাসে না বা অন্যের মুখে সে নাম শুনলে ভালো লাগে না এমনটি হতে পারে খুব কম।

  • বগুড়ায় এডওয়ার্ড পার্ক শিশুদের প্রিয় জায়গা (ভিডিওসহ)  

    শিশু-কিশোরসহ বড়রাও বেড়াতে ভালোবাসেন বগুড়া এডওয়ার্ড পার্কে।

  • একাধিক শিশু জন্মানোর ঝুঁকি ও সতর্কতা (ভিডিওসহ)

    প্রায়ই আমরা জমজশিশু জন্মাতে দেখি। কখনো কখনো দুইয়ের বেশি শিশু প্রসব করার ঘটনাও শোনা যায়। সম্প্রতি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী হাসপাতালে পরপর তিন নবজাতকের জন্ম দেন বানাইল গ্রামের সুবর্ণা বেগম।