খবরাখবর

বৃষ্টি খাতুন (১৫), মাগুরা

Published: 2018-05-10 19:43:59.0 BdST Updated: 2018-05-10 19:46:23.0 BdST

রঙিন ছাতা, স্কুল ব্যাগ, থালা, গ্লাস, মগ দেওয়া হয়েছে মাগুরার শিশু পরিবারের দেড় শতাধিক এতিম শিশুকে।

মাগুরা জেলা প্রশাসক নিজের উদ্যোগে স্থানীয় দানশীল ব্যক্তিদের সহযোগিতায় শিশুদের এসব উপকরণ দেন।

এই প্রাপ্তির দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে আয়োজন করা হয় নাচ ও গানের।

বর্তমানে এই শিশু পরিবারে একশ ৫৩ জন অনাথ কন্যা শিশু রয়েছে।

শিশু পরিবার কর্তৃপক্ষ জানায়, মেয়েরা পাশের দুটি স্কুলে প্রথম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করছে। তাদের থাকা খাওয়া, লেখাপড়া, পোশাক ও চিকিৎসা বাবদ জনপ্রতি মাত্র ২৬’শ টাকা সরকারিভাবে বরাদ্দ রয়েছে।

শিশুরা বলছে, আগে পোশাক, জুতা ও কম্পিউটার পেয়েছে। এখন ছাতা, ব্যাগসহ অন্যান্য জিনিস পেয়ে তারা বেশ খুশি।

এক শিশু বলে, “আগে আমরা বৃষ্টিতে ভিজে স্কুলে যেতাম। এখন আর স্কুলে যাওয়ার সময় ভিজব না, আমাদের বই ভিজবে না।”

জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা বলেন, “সরকারের পাশপাশি সমাজের বিত্তবান দানশীল ব্যক্তিরা এই শিশুদের পাশে পাশে দাঁড়ালে এরা সমাজের মূল ধারার শিশুদের মতো বেড়ে উঠে এক সময় প্রতিষ্ঠিত হতে পারবে।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • একাধিক শিশু জন্মানোর ঝুঁকি ও সতর্কতা (ভিডিওসহ)

    প্রায়ই আমরা জমজশিশু জন্মাতে দেখি। কখনো কখনো দুইয়ের বেশি শিশু প্রসব করার ঘটনাও শোনা যায়। সম্প্রতি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী হাসপাতালে পরপর তিন নবজাতকের জন্ম দেন বানাইল গ্রামের সুবর্ণা বেগম।

  • আমার ভালোবাসা

    মানুষের জীবনে নিজের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হলো তার নাম। নাম দিয়েই আমরা একজন থেকে আরেকজনকে আলাদা করে চিনতে পারি। আর নিজের নাম ভালোবাসে না বা অন্যের মুখে সে নাম শুনলে ভালো লাগে না এমনটি হতে পারে খুব কম।

  • আমরা শিশু রোবট

    অনেক অনেক দিন আগের কথা। সুজলা-সুফলা-শস্য-শ্যমলা আমাদের এ চির সবুজ বাংলাদেশ। বড়ই বিচিত্র এ দেশ। ঠিক তেমনি বিচিত্র আমাদের, শিশুদের বিনোদন।