শিক্ষার আলো পৌঁছে যাক প্রতি ঘরে | hello.bdnews24.com
আমার কথা

রোমাইসা আক্তার (১৫), গাজীপুর 

Published: 2022-01-11 23:10:53.0 BdST Updated: 2022-01-11 23:13:46.0 BdST

আট বছর বয়সী সুভাষের কথা দিয়ে আলোচনাটা শুরু করতে চাই।

সুভাষ তার পরিবারের সবচেয়ে ছোট সদস্য। পরিবারের সঙ্গে সে থাকে শিল্পনগরী গাজীপুরে। তার আরো দুটি ভাই আছে। দুজনেই বয়সে কিশোর। সুভাষের দুই ভাই এবং তার বাবা-মা একটি তৈরি পোশাক শিল্পে কাজ করে। অর্থাৎ পরিবারের এই ছোট সদস্য বাদে সবাই শ্রমিক।

সুভাষ দিন কাটায় বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা করে এবং রাস্তায় ঘুরে ফিরে। সে স্কুলে পড়ে না, এমনকি তার বন্ধুরাও পড়ে না।  হয়ত কিছুদিন পর তাকেও যুক্ত করা হবে কাজে।

সুভাষের মতো এমন অনেক শিশু এখানে আছে যারা পড়াশোনা করে না। আবার তার ভাইদের মতো অনেক কিশোর আছে যারা শ্রমিক হিসেবে ইতোমধ্যে কাজে যুক্ত হয়ে গেছে।

সংবাদমাধ্যম থেকে জানতে পেরেছি গাজীপুরে ২৫ লাখ শ্রমিক রয়েছে। এর অর্ধেক পরিবারেও যদি এমন ঘটনা ঘটে থাকে তবে এটি আমাদের জন্য খুবই ভয়ংকর হয়ে উঠবে। 

আমি মনে করি তাদের শিক্ষার গুরুত্ব বোঝাতে হবে। পোশাক কারখানাগুলো এখানকার দায় এড়াতে পারে না। শিশু শ্রমিক নিয়োগ না দেওয়া, তাদের মধ্যে শিক্ষার আলো পৌঁছাতে তাদের দায়িত্ব রয়েছে বলে আমি মনে করি। এই শিশুরা সুন্দর জীবন পেলে সঙ্গে লাভবান হবে আমাদের দেশটাও।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত