আমার কথা

রাফসান নিঝুম (১৭), ঢাকা

Published: 2019-10-16 16:04:23.0 BdST Updated: 2019-10-16 16:04:23.0 BdST

প্রকাশ্যে ধুমপান করা মানা হলেও আমি কখনো কোনো ধূমপায়ীকে এটা মানতে দেখিনি। এটা যে অনিয়ম সেটা যেন কাউ জানেনই না।

যারা ধূমপান করেন তাদের যেমন ধূমপানের ধোঁয়ায় সমস্যা হয় তেমনি যারা ধূমপান করেন না তাদেরও ক্ষতি হয়।

পত্র-পত্রিকায় দেখেছিলাম, উন্মুক্ত জায়গায় প্রকাশ্যে ধূমপানের শাস্তি তিনশ টাকা। তাছাড়া আইন বাস্তবায়নে ব্যর্থ হলে ‘পাবলিক প্লেসের’ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে পাঁচশ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। 

তবে এই আইন আমি কখনো কার্যকর হতে দেখিনি। এই অনিয়মটাই হয়ে দাঁড়িয়েছে নিয়মে। 

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) এর একটি প্রতিবেদনে উঠে এসেছে ২০০৪ সালে ছয় লক্ষ শিশুর মধ্যে ৩১% শিশুর অকাল মৃত্যু হয়েছে শুধুমাত্র পরোক্ষ ধূমপানের ফল। অর্থাৎ ধূমপায়ীর ধূমপানের ধোঁয়ায়!

জার্মানির ক্যানসার গবেষণা কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, শুধুমাত্র ধূমপান করার কারণেই বছরে এক লাখ ১০ হাজার থেকে এক লাখ ৪০ হাজার মানুষ মারা যায়৷ ধূমপায়ীদের কাছাকাছি থেকে সিগারেটের ধোঁয়া গ্রহণ করার কারণে মারা যাচ্ছে প্রায় ৩৩০০ জন৷

ডয়েচে ভেলের এক প্রতিবেদনে পড়লাম, ধূমপান শরীরের যে কোনো অঙ্গেরই ক্ষতি করে, তবে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করে ফুসফুস এবং হার্ট বা হৃদযন্ত্রের৷ ফুসফুসের ক্যানসার রোগীদের মধ্যে শতকরা ৯০ জনই ধূমপায়ী।

যারা ধূমপায়ীদের আশেপাশে থাকে তারা আক্রান্ত হয় স্বাস্থ্যগত নানা সমস্যায়৷ আর সন্তানসম্ভবা মায়েরা ধূমপানের সময় ভাবুন তাদের অনাগত শিশুর স্বাস্থ্যের কথা৷ এমনটাই বলেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা৷

সেদিন বাসের জন্য দাঁড়িয়েছিলাম বাস স্টপে। আমার সামনে সিগারেট হাতে দাঁড়িয়ে আছেন মধ্যবয়সী এক ব্যক্তি। পাশেই শিশু কোলে এক নারী ছিলেন। উনি এই সিগারেটের ধোঁয়া সহ্য করতে না পেরে দূরে সরে এলেন কিছু একটা বলতে বলতে।

আমি তাকে বললাম, “ভাই, পাবলিক প্লেসে এভাবে সিগারেট খাওয়া কি ঠিক? মানুষের সমস্যা হচ্ছে তো!"

ভদ্র লোক আমার কথা পাত্তা না দিয়ে সিগারেট খেয়েই গেলেন। আমিও আর কথা বাড়ালাম না। কবে তারা সচেতন হবেন, কবে কমবে অকাল মৃত্যু! কে জানে?  

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত