আমার কথা

আরমান মুন্না (১৭), সিলেট

Published: 2019-02-02 17:06:06.0 BdST Updated: 2019-02-02 17:24:28.0 BdST

প্রতিটি মানুষেরই নিজস্ব ইচ্ছা-অনিচ্ছা, পছন্দ-অপছন্দ এবং রুচিবোধ আছে। শিশুরাও তার ব্যতিক্রম নয়। আমাদেরও আছে ইচ্ছা-অনিচ্ছা, পছন্দ-অপছন্দ।

সমাজে এবং পরিবারে অধিকাংশ ক্ষেত্রে শিশুদের পছন্দ-অপছন্দ এবং চাওয়াকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না। সেখানে আমাদের ধমক দিয়ে রাখা হয় ছোট বলে। সবাই বলে সঠিক পছন্দের জ্ঞান তোমাদের হয়নি এখনও।

আমাদের দেশে অনেক শিক্ষার্থী অষ্টম শ্রেণি পাস করে নিজের অনিচ্ছা সত্ত্বেও বাধ্য হয়ে বিজ্ঞান পড়ে। কারণ তাতে বাবা-মা তাদের নিজের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দেন।

একটি বিষয় অনেক আগে থেকেই লক্ষ্য করছি যে, আমাদের দেশের অনেক বাবা-মায়েরা সন্তানকে শুধু চিকিৎসক অথবা প্রকৌশলী বানাতে চান। তাদের এমন কারো কারো কথায় মনে হয় এই দুই পেশা ছাড়া দেশে আর কোনো পেশা নেই।

হয়তো অনেক শিশু ভাবছে সে বড় হয়ে পুলিশ হবে, উকিল হবে, শিক্ষক হবে, সাংবাদিক হবে এবং এমন হাজারও কিছু হতে চায়। কিন্তু তাদের ভাবনা চাপা পড়ে যায় বাবা-মায়ের প্রত্যাশার কাছে।

শিশু বলে কী আমাদের এমন ভাবনা শুধু ভাবনাই থেকে যাবে? তা যে মেনে নেবার নয়। আমাদেরকেও গুরুত্ব দিতে হবে। গুরুত্ব দিতে হবে আমাদের ইচ্ছা-অনিচ্ছাকে।

বাবা-মা এবং বড়দের বুঝতে হবে শিশুরা রোবট নয়। তাই বাবা-মা ও বড়দের প্রতি আকুল অনুরোধ আপনারা আমাদের ইচ্ছা বা লক্ষ্য পূরণে সহযোগী হোন, ইচ্ছাকে চাপা দিতে নয়।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত