আমার কথা

ওমর ফারুক (১৭), ঢাকা

Published: 2018-09-09 16:40:08.0 BdST Updated: 2018-09-09 16:40:08.0 BdST

কিছুদিন ধরেই সড়কে প্রচুর দুর্ঘটনা হচ্ছে। খবরের কাগজ খুললেই চোখে পড়ে যায় দেশের বিভিন্ন স্থানের সড়ক দুর্ঘটনার এসব খবর।

সড়কে এমন পরিস্থিতির জন্য অনেকেই চালক এবং গাড়ির ফিটনেসকে দায়ি করছেন। 

প্রতিদিনই আমাকে এই সড়কে চলাচল করতে হয়। ধানমণ্ডির জিগাতলা থেকে ফার্মগেট যাওয়ার পথে যতগুলো লেগুনা দেখতাম তার সবগুলোই ফিটনেসবিহীন এবং এগুলার চালকের আসনে বসতে দেখা যেত অপ্রাপ্ত বয়স্ক শিশুদের। এখন অবশ্য ডিএমপি এই লেগুনা সড়কে নিষিদ্ধ করেছে।

ফার্মগেট থেকে উত্তরা আমাকে বাসে করে চলাচল করতে হয়। চলার পথে গাড়ি চালকদের দায়িত্বশীলতার অনেক অভাব দেখতে পাই। গত কয়েকদিন আগে ফার্মগেট থেকে উত্তরা যাওয়ার পথে দেখলাম চালক গাড়ি চালানো অবস্থায় তার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অন্য প্রান্তের কারোর সাথে হাসি ঠাট্টা করছেন। আমি সামনে বসায় তাকে বারবার ফোন কেটে দেওয়ার  জন্য অনুরোধ করি। কিন্তু তিনি তা না শোনে ফোনে ব্যস্ত থাকায় আমরা কয়েক জন সিট থেকে উঠে যাওয়ার পর সে ফোন রেখে গাড়ি চালাতে শুরু করে। আবার গতকালও একটি বাসকে তিন জায়গায় পুলিশ চেক করে গাড়ির কোনো প্রকার বৈধ কাগজপত্র পায়নি ফলে বারবার বিভিন্ন স্থানে আমাদের বিনা কারণে বসে থাকতে হয়েছে অনেক সময় ধরে।

এরপর সড়কে এক গাড়ির সাথে অন্য গাড়ির প্রতিযোগিতা তো অহরহ হচ্ছেই। তাহলে আমরা সড়কে কতটুকু নিরাপদ? প্রশ্ন থেকে যায় কিন্তু সমাধান হয় না।

গত একমাস ধরে ঘটে যাওয়া সড়ক দুর্ঘটনায় চালকদের দায়িত্বশীলতার ব্যাপক ঘাটতি দেখা যায়। বেপরোয়া যানবাহন চলাচলের ফলে সড়কেই প্রতিদিন প্রাণ হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ। প্রতিদিন সকালে ঘর থেকে বের হয়ে সুস্থভাবে ঘরে ফিরে আসার নিশ্চয়তা নেই। চলার পথে ফিটনেসবিহীন গাড়ি ও চালকদের দায়িত্বশীলতার অভাবে অকালে প্রাণ হারাতে হচ্ছে আমাদেরকে।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত