আমার কথা

নাজমুল হাসান অনিক (১৫), সিরাজগঞ্জ

Published: 2018-06-23 20:57:36.0 BdST Updated: 2018-06-24 21:10:09.0 BdST

রয়টার্স
খেলা বিনোদনের সেরা মাধ্যম। আমরা চার বছর অন্তর অন্তর ফিফার বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখার জন্য অপেক্ষায় থাকি।

কিন্তু খেলা শুরুর আগে থেকেই সমর্থকদের রেষারেষি, পতাকার দৈর্ঘ্য নিয়ে পাল্লা দেওয়া, সামাজিক মাধ্যমে এক দলের সঙ্গে অন্যদলের সমর্থকদের কটূ মন্তব্য ছোঁড়াছুঁড়ি, মনোমালিন্য দেখতে ভালো লাগে না। খেলা কোথায় মানুষকে একত্রিত করবে, তা না করে বিচ্ছিন্ন করছে।  

যুগের পর যুগ পৃথিবীর সকলেই একত্রিত হতে পারে খেলাধুলার মাধ্যমে। পরিচিত হয় সে দেশের মানুষ, ভূগোল ও সংস্কৃতি সম্পর্কে।

এবার বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে পৃথিবীর ৩২টি দল। এর মধ্যে রয়েছে আমাদের যার যার পছন্দের দল। বিশ্বব্যাপী প্রতিটি দলের কোটি কোটি ভক্ত বা সমর্থক রয়েছে।  

নিজের পছন্দের দল ভালো খেললে ভক্তরা অনেক আনন্দিত আর উল্লসিত হন। আর এটাই বাস্তব। কিন্তু প্রতিপক্ষ দল ও দলের ভক্তদের কটূক্তি, খারাপ ছবি, খারাপ কথা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভরে উঠেছে।

শব্দবাণে জর্জরিত করছে একদল আরেক দলের ভক্তদের। এতে করে খেলা কতটুকু উপভোগ করছেন তারা, সেটা তারাই জানেন।

বিশেষ করে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের ফুটবল খেলা নিয়ে উন্মত্ত হয়ে পড়েছেন আমাদের দেশের সমর্থকরা। মেসি ভালো নাকি নেইমার, কোস্টারিকা বা ক্রোয়েশিয়া কারা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্য, কারা নয়; সেনেগালের সমর্থকরা খেলাই বোঝেন না, এসব নানান মন্তব্যে খেলা আর খেলা নাই, হয়ে উঠেছে কুরুক্ষেত্র। এমন কি গ্যালারিতে দুই দলের কিছু সমর্থকদের মারামারি করার দৃশ্যও দেখা গেছে।

যারা অন্যদলকে কটাক্ষ করছেন, কখনও কখনও লেখায় ও মন্তব্যে তারা শালীনতার সীমা অতিক্রম করছেন। আমার সন্দেহ হয়, তারা কি আসলে ফুটবল খেলা ভালোবাসেন না কি ঝগড়া করতে পছন্দ করেন!

তারা আসলে প্রকৃত ফুটবলপ্রেমী নন। ফুটবল কে ভালোবাসেন না। তারা হিংসা আর কটাক্ষ চর্চা করে নিজের অল্পবিদ্যাকে জাহির করেন। নিজের পছন্দের দলকে অভিনন্দিত করার পাশাপাশি অন্যদল ভালো খেললে তাদেরও প্রশংসা করাই যে ভব্যতা, ভুলে যান। 

শুধু নিজের পছন্দের একটা দল নিয়ে তো আর খেলা যায় না। আর বিশ্বকাপে তো পৃথিবীর বহুদল অংশ নেয়। খেলায় হারজিত থাকবেই। কেন কেউ ধরেই নিচ্ছেন, তার দলটাই সেরা? সেই দলই একমাত্র বিশ্বকাপ পাওয়ার যোগ্যতা রাখে।  

ভেবে দেখুন, অন্য দলটি না থাকলে আপনার দলটি মূল্যহীন। সকলের উচিত নিজের পছন্দের দলের বাইরে অন্য দল ভালো বা মন্দ যাই খেলুক, তাদের প্রতি কটাক্ষ করবেন না, ব্যঙ্গ করবেন না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অন্যদল এবং দলের ভক্তদের নিয়ে খারাপ উক্তি, খারাপ ছবি আপলোড না করে তাদের স্বাগত জানানোই প্রকৃত ফুটবলপ্রেমীর পরিচয়।

এ মাধ্যম আপনার পরিচয়, রুচি বহন করে। এর মাধ্যমে হাজার হাজার মানুষ আপনার রুচি, ব্যবহার এবং ভব্যতার পরিচয় সম্পর্কে ধারণা রাখেন। বিশ্বকাপ খেলায় উন্মত্ত হয়ে, প্রতিপক্ষকে ব্যঙ্গ করতে গিয়ে নিজের রুচি, ব্যবহার ও ভব্যতাকে সকলের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ করবেন না। তাহলে ক্ষতিটা আপনার নিজেরই।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত