আমার কথা

প্রিয়াংকা ভদ্র (১৩), সিরাজগঞ্জ

Published: 2018-06-12 17:31:45.0 BdST Updated: 2018-06-12 17:31:45.0 BdST

আমাদের জীবনের প্রথম ধাপ হচ্ছে পরিবার। মা-বাবা, ভাই-বোনসহ আরও অনেককে নিয়ে আমাদের এই পরিবার গঠিত হয়।

কিন্তু পরিবারের মধ্যেই আবদ্ধ থাকি না। আমাদের সীমানা বহুদূর পর্যন্ত বিস্তৃত।

সবারই অধিকার আছে মুক্ত হাওয়ার, স্বাধীনভাবে চলার। কিন্তু অনেকে এ ধরনের স্বাধীনতা ভোগ করতে পারছে না, যাদের মধ্যে মেয়েদের সংখ্যাই বেশি।

আমাদের সমাজের অবস্থারও পরিবর্তন এসেছে। কিন্তু এখনও আমাদের অনেকের চিন্তা ভাবনা পিছিয়ে রয়েছে। নারীদের প্রতি বৈষম্যও হয় এই দৃষ্টিভঙ্গির কারণে।

এক মুহুর্তের জন্য ভাবি না এইসব বৈষম্যের মূল কারণ কি?

আমার মতে এর মূল কারণ হচ্ছে যৌতুক, বাল্যবিবাহ, শিক্ষার অভাব, সমাজ ব্যবস্থা এবং যুগ যুগ ধরে চলে আসা প্রথা ইত্যাদি।

একটা জিনিস খেয়াল করে দেখলাম যুগ যুগ ধরে চলে আসা এসব সামাজিক প্রথা ও নিয়ম কানুনের বলি নারীরাই। নারীরা শিক্ষিত হলে, একটু মাথা তুললেই নারী মুক্তি মিলবে।

যেসব দেশে শিক্ষার হার বেশি তারা তাদের দেশকে খুব সহজেই এগিয়ে নিয়ে যেতে পারছে। বাংলাদেশেও সরকার শিক্ষার হার বাড়ানোর জন্য সবাইকে শিক্ষার সুযোগ করে দিচ্ছে বিশেষ করে মেয়েদের। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে তাদের। তবুও অনেক ক্ষেত্রে মেয়েরা এসব অধিকার ভোগ করার সুযোগ পাচ্ছে না।

আমার ধারনা এধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবার জন্য শুধুমাত্র একটু ভালো চিন্তা ভাবনার প্রয়োজন। অনেক মেয়ে সুযোগের অভাবে তার প্রতিভা বিকাশ করতে পারছে না।

যদিও এই সমাজের পরিবর্তনের পিছনে নারী ও পুরুষের সমান হাত রয়েছে তবুও সবক্ষেত্রে এখনও পুরুষদেরকেই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। সবাই যেহেতু মানুষ সেহেতু সবার অধিকার সমান। কেন মেয়েরা পিছিয়ে থাকবে? বর্তমানে এ ধরনের সমস্যার হার অনেক কমেছে তবুও এই সমস্যা এখনও পুরোপুরি ভাবে নির্মূল হয়নি। যেদিন এই ধরনের সমস্যা পুরোপুরি নির্মূল হবে সেদিন সমাজ পুরোপুরিভাবে আলোকিত হবে।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত