আমার কথা

কাওসার আলী (১৪), সিরাজগঞ্জ 

Published: 2018-04-01 20:49:31.0 BdST Updated: 2018-04-01 20:49:31.0 BdST

খেলা শেষ করে মাঠ থেকে বাড়ি ফিরছিলাম। হঠাৎ একটা কথা কানে আসায় আমার পা থেমে গেল।

মাঠের এক প্রান্তে দুটো শিশু খেলছিল। হঠাৎ একজন আরেকজনকে বলল, "তোর নতুন মা বলে চলে গেছে।"

বিষয়টা নিয়ে ঐ শিশুদের কিছু না বলে পাশের বন্ধুদের সহায়তা নিলাম।

হাঁটতে হাঁটতে বন্ধুরা জানালো যে, শিশুটির বাবা বেশ কিছুদিন আগে তার মাকে ছেড়ে দিয়েছে! শিশুটি নানা আইনি জটিলতায়  তার মার কাছে যেতে পারছে না। শিশুটির বাবা নতুন বিয়ে করেছে।

আমাদের গ্রামে মাঠ না থাকায় পাশের গ্রামে খেলতে যাই। আর মাঠে খেলতে গেলেই ঐ ছেলের সাথে দেখা হয়। ব্যাট,স্ট্যাম্প মাঠে নিয়ে যাওয়াসহ খেলার সময় বল মাঠের বাইরে গেলে তাও এনে দেয়। বিনিময়ে আমাদের খেলা শুরু হওয়ার আগে এবং শেষ হওয়ার পরে ৫-৭ মিনিট বল, ব্যাট নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে খেলে।

বেশ কিছুদিন মাঠে না যাওয়ায় এবং ওর বাড়ি পাশের গ্রামে হওয়ায় আমি ওর বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানতাম না। এখন ওদের পরিস্থিতি সম্পর্কে জেনে খুবই খারাপ লাগছে।

ওর যে বয়স তাতে মা বাবার আদর-স্নেহে বড় হবার কথা। ভুল করলে মা বাবার শাসনে নিজেকে শুধরে নেবে। কিন্তু ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস, এই বয়সেই তারা মা বাবা থাকা সত্ত্বেও সে আদর স্নেহ থেকে বঞ্চিত!

ওদের বাবা মাঠে কাজ করে। কাজের সন্ধানে বিভিন্ন জেলায় ঘুরে বেড়ানোর কারণে বেশিরভাগ সময়ই বাড়ির বাইরে থাকে। সবমিলিয়ে তাদের শৈশবটাই নষ্ট! ওদের শৈশব আর দশটা শিশুর শৈশবের  মতো নয়!

পৃথিবীতে এদের মত হাজারো শিশু রয়েছে যারা মা বাবা থাকা সত্ত্বেও তাদের আদর-ভালোবাসা থেকে বঞ্চিত! কেউ কেউ অনাথ না হয়েও দিনযাপন করছে অনাথ আশ্রমে। কেউ কেউ জানেই না তাদের মা বাবা বেঁচে আছে কি নেই।

এখন যদি বলা হয় ওরা এই বয়সে আদর-স্নেহ থেকে বঞ্চিত হবে কেন? কেন মা-বাবা থাকা সত্ত্বেও মা বাবাকে ডাকতে পারবে না? কেন মায়ের কোলে ঘুমিয়ে রাত কাটাতে পারবে না? এদের ভুল কোথায়? কি দোষ করেছে এরা?

আমাদের যাদের মা বাবা আছে তারা ওদের দুঃখ হয়তো ওভাবে বুঝতে পারব না। তবুও শিশুটি জীবন কল্পনা করে আমার খুব কষ্ট হচ্ছিল।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • ফরিদপুরের শিশু পার্ক (ভিডিওসহ)

    ফরিদপুরের শেখ রাসেল শিশুপার্কটি জেলার শিশুদের একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র।

  • অপরূপ শ্বেতপদ্ম (ভিডিওসহ)

    ধান, নদী, খালের অপরূপ সৌন্দর্যে পূর্ণ বরিশাল। ছল ছল শব্দে নদীর বয়ে চলা, চোখ জুড়ানো ধানের ক্ষেতে প্রজাপতির লুকোচুড়ি খেলা, মৃদু বাতাসে দু’একটা শিরীষ পাতা বা হিজলের লালচে ফুলের পানিতে ঢলে পড়া আবার গাঙ ফড়িং এর চঞ্চল উড়াউড়ি, তার ভেতরে পদ্মপাতায় সাপ আর ভ্রমরের খেলা কি নেই এই বরিশালে। যেখানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কড়া নাড়ে সব বাঙালির হৃদয়ে।

  • কল্যাণপুর বস্তিতে নেই সরকারি স্কুল

    রাজধানীর কল্যাণপুর বস্তিতে সরকারি স্কুল না থাকায় অনেক শিশু শিক্ষা বঞ্চিত হচ্ছে বলে মনে করছেন অনেক বস্তিবাসী।