আমার কথা

পৃথা প্রণোদনা (১৫), ঢাকা

Published: 2018-03-11 20:50:48.0 BdST Updated: 2018-03-11 21:58:58.0 BdST

বর্তমানে বেশিরভাগ শিশুর অবসর কাটানোর অন্যতম মাধ্যম হলো ‘কম্পিউটারে বা মোবাইলে গেমস।’

পড়াশোনার ফাঁকে সময় পেলেই ইচ্ছে হয় একটু গেমস খেলার!

অনেক সময় পড়াশোনা করতে করতেই মনে হয়, “যাই ক্ল্যাস অফ। ক্ল্যান্স এর পরের লেভেলটা একটু খেলে আসি।” কিন্তু এই একটা লেভেল শেষ হলেই ইচ্ছে হয় আরেকটা লেভেল শেষ করার। এরপর আরেকটা লেভেল। এভাবেই প্রতিনিয়ত শিশুদের মধ্যে তৈরি হচ্ছে কম্পিটার বা মোবাইলে গেমস খেলার আসক্তি।

ছোটবেলা থেকেই আমি কম্পিউটার বা মোবাইল গেমস খুব বেশি খেলি না। সময় পেলে পাঁচ-দশ মিনিট। এখন পরীক্ষা শেষ। তাই মোটামুটি ঘরে বসে অলস সময় কাটাচ্ছি। আজ সকালে হঠাৎ কেন জানি খু্‌ব গেমস খেলার ইচ্ছে হলো। নিজের ফোনের প্লে স্টোরে ঢুকে গেমস খুঁজছিলাম আর চিন্তা করছিলাম কোন গেমসটা ডাউনলোড করা যায়! এই গেমস ডাউনলোড করার সময় এমন সব গেমস আমার চোখে পড়ল, যেটির মাধ্যমে আমার মতো হাজারো শিশু প্রভাবিত হচ্ছে।

প্রথমেই যে গেমসটির উপর আমার চোখ পড়ল, সেটি হলো-‘চিটিং টম থ্রি।’ এই গেমসটিতে টম নামের একটি ছেলে থাকে যে কিনা তার বন্ধুদের খাতা নকল করে পরীক্ষায় ভালো নম্বর পায়। এবং যে এই গেমসটি খেলবে, তার কাজ হলো টমকে পরীক্ষায় নকল করতে সাহায্য করা। সুতরাং, যে এই গেমসটি খেলবে, সেই হবে টম।

এরপর দেখলাম ‘রোবারি বোবারি বোব টু।’ এই গেমসটি যে খেলবে সে হবে একজন রোবার অর্থাৎ ডাকাত এবং তার কাজ হবে মানুষের বাড়িতে গিয়ে চুরি করা। আর যখনই সে চুরি করতে ‍গিয়ে কারো কাছে ধরা পড়ে যাবে, ঠিক তখনই গেইম ওভার হয়ে যাবে।

প্লে স্টোরে এই গেমসগুলো দেখে আমার মনে প্রশ্ন জাগল। শিশুরা কি তাহলে কম্পিউটার গেমস খেলার মাধ্যমেই সমাজের অনৈতিক কার্যক্রমগুলোতে নিজেদেরকে জড়িয়ে ফেলছে? শিশুরা তো তাহলে কম্পিউটার গেমস দ্বারা প্রতিনিয়তই প্রভাবিত হচ্ছে খারাপ কাজের দিকে!

আমাদের সমাজের অনেক বাবা-মা নিজেদের কাজে ব্যস্ত থাকেন এবং শিশুকে কম সময় দেওয়ার কারণে তাদেরকে খুশি করার জন্য তাদের হাতে মোবাইল ফোন বা কম্পিউটার ধরিয়ে দেন। কিন্তু প্রযুক্তিকে উপহার হিসেবে পাওয়া অনেক শিশুরাই এখনো জানে না যে কীভাবে এ প্রযুক্তির ব্যবহার করতে হয়।

অনেক শিশুই কম্পিউটার গেমস এর মাধ্যমে প্রভাবিত হয়। তাই কম্পিউটার গেমস খেলার মাধ্যমেই যদি শিশুরা ছোট থেকেই চুরি-ডাকাতি, পরীক্ষায় নকল করা শেখে তাহলে তারা ভবিষ্যতে কী করবে একবার ভেবে দেখেছেন কী? তাই যত দ্রুত সম্ভব চিটিং টম থ্রি, রোবারি বোবারি বোব টু ইত্যাদি গেমসগুলো প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে নেওয়া উচিত।

দয়া করে এমন সব গেমস উদ্ভাবন করুন যার মাধ্যমে শিশুরা কিছু শিখতে এবং একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়ার আগ্রহ ও অনুপ্রেরণা পায়।

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • অপরূপ শ্বেতপদ্ম (ভিডিওসহ)

    ধান, নদী, খালের অপরূপ সৌন্দর্যে পূর্ণ বরিশাল। ছল ছল শব্দে নদীর বয়ে চলা, চোখ জুড়ানো ধানের ক্ষেতে প্রজাপতির লুকোচুড়ি খেলা, মৃদু বাতাসে দু’একটা শিরীষ পাতা বা হিজলের লালচে ফুলের পানিতে ঢলে পড়া আবার গাঙ ফড়িং এর চঞ্চল উড়াউড়ি, তার ভেতরে পদ্মপাতায় সাপ আর ভ্রমরের খেলা কি নেই এই বরিশালে। যেখানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কড়া নাড়ে সব বাঙালির হৃদয়ে।

  • ফরিদপুরের শিশু পার্ক (ভিডিওসহ)

    ফরিদপুরের শেখ রাসেল শিশুপার্কটি জেলার শিশুদের একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র।

  • মহাস্থান গড়ের সবজি (ভিডিওসহ)

    ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে কাঁধে অথবা ভ্যানে করে বগুড়া সদর, শিবগঞ্জ ও এর আশেপাশের এলাকা হতে চাষিরা সবজি নিয়ে হাজির হন মহাস্থান বাজারে।