আমার কথা

তানভীর ইবনে কবির (১৪), বগুড়া

Published: 2017-10-08 19:50:48.0 BdST Updated: 2017-10-08 20:00:57.0 BdST

অক্টোবরের ৫ তারিখ সারাবিশ্বে শিক্ষক দিবস পালিত হলো। শিক্ষকদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ও তাদের অবদানকে স্মরণ করে প্রতিবছর এই দিনটি পালিত হয়। আর এ দিবসে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাই আমার সব শিক্ষককে।

তবে বিশেষ দিন বলেই সবচেয়ে বেশি মনে পড়েছে আমার বেশি প্রিয় দুজন শিক্ষকের কথা। তাদের দেওয়া শিক্ষা, উপদেশ, শাসন, আমার এই ছোটো জীবনের সঞ্চয়।

প্রথমেই বলি এএসএম নোমান স্যারের কথা। আমার জীবনে তার অবদান অনেক বেশি। আমি যেকোনো দরকারে তার কাছে যাই। তিনি কখনও বিরক্ত হন না। হাসি মুখে আমার সমস্যার সমাধান করে দেন। তিনি সাহায্য করেন, উপদেশ দেন আবার শাসনও করেন।

স্যার আমার পড়াশোনাসহ অন্য অনেক ক্ষেত্রেও নানান বাস্তবতার সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন।

আর একজন হলেন জাকারিয়া হোসেন স্যার। যার পড়ানোর কৌশল আমাকে বরাবর মুগ্ধ করে। তিনি একটু অন্যরকমভাবে আমাদের পড়ান।

প্রত্যেক বিষয় আমাদের কাছে নতুনভাবে তুলে ধরেন। আমাদের যেকোনো সমস্যাই তিনি হাসি মুখে সমাধান করে দেন। তিনি আমাকে বাংলা সাহিত্যের সাথে নতুনভাবে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন। আমার লেখালেখির ক্ষেত্রেও তিনি আমাকে নানান ভাবে অনুপ্রেরণা যোগান।

আমার জীবনের যেটুকু সাফল্যের পেছনে তাদের অবদান অনস্বীকার্য। আমার ১৪ বছরের এই জীবনে তাদের শিক্ষক হিসাবে পাওয়া খুবই গর্বের।

শিশুর ভবিষ্যৎ কেমন হবে তা নির্ভর করে পরিবার আর শিক্ষকের ওপর। তবে শিক্ষার্থীর জীবনে শিক্ষকের গুরুত্বই সব চেয়ে বেশি। শিক্ষকই আদর্শ মানুষ গড়ার কারিগর। বিশ্বের সব শিক্ষকের প্রতি আমার শ্রদ্ধা ও আমার সালাম। 

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • ইংরেজির বড়াই

    ‘আগে চাই বাংলা ভাষার গাঁথুনি, তারপর ইংরেজি ভাষার পত্তন’ বলেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। প্রত্যেক দেশের মানুষেরেই একটি নির্দিষ্ট ভাষা রয়েছে, নির্দিষ্ট সংস্কৃতি রয়েছে। তবে আজ আমরা অনেকেই আমাদের ভাষা, সংস্কৃতিকে ভুলতে বসেছি। বর্তমানে নিজ দেশের সংস্কৃতি ও ভাষার তুলনায় আমরা অন্য দেশের ভাষা ও সংস্কৃতি মেনে চলতে বেশি ভালোবাসি, স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি!

  • মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে নাই যুদ্ধ সরঞ্জাম (ভিডিওসহ)

    চার বছর আগে টাঙ্গাইলে যুদ্ধের স্মৃতি সংরক্ষণ করতে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স তৈরি করা হলেও সেখানে এখনও ঠাই পায়নি কোনো স্মৃতি বা যুদ্ধ সরঞ্জাম।

  • ফুটবল নিয়ে কুরুক্ষেত্র 

    খেলা বিনোদনের সেরা মাধ্যম। আমরা চার বছর অন্তর অন্তর ফিফার বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা দেখার জন্য অপেক্ষায় থাকি।