অন্য চোখে

আশনা আনজুম (১৭), ঢাকা

Published: 2017-03-28 19:11:08.0 BdST Updated: 2017-03-28 19:12:45.0 BdST

সংগৃহীত
হিস্ট্রি ডটকম ওয়েবসাইটে ক্রিস্টোফার কেলিনের লেখা ‘দ্য বার্থ অব ওকে, ১৭৫ বছর আগে’ এই নিবন্ধটি পড়েছিলাম বেশ আগেই। তবে তথ্যগুলো এভাবে লিখে সবাইকে জানানোর কথা মনে হলেও সুযোগ হয়নি। আজ হ্যালোর পাতায় লিখে পাঠালাম ওকে (OK) শব্দের ইতিহাস।

এই শব্দটি আমরা প্রত্যেকদিন অন্তত একাধিকবার ব্যবহার করি। ভাসাভাসাভাবে জানতাম এর অর্থ, ‘ঠিক আছে’। তবে কবে কখন কীভাবে এটি একটি সম্পূর্ণ শব্দ হয়ে অভিধানে ঢুকে পড়েছে, জানতাম না।

কেলিন জানিয়েছেন, ১৭৫ বছর আগের কথা। আজকের দিনে যেমন 'LOL' বা 'OMG' এর মত শর্টকার্ট শব্দের দিকে এক ধরনের ঝোঁক লক্ষ্য করা যায় তেমনি তখন আমেরিকায় এধরনের শব্দ ব্যবহারের দিকে ঝোঁক দেখা দিয়েছিল। সেসময় প্রায় সবাই শর্টকার্ট শব্দ তৈরির জন্য নানা উপায় খুঁজত। এমনকি অনেক সময় ইচ্ছাকৃতভাবে বানান ভুল করেও তারা নতুন নতুন শব্দ তৈরি করত। যেমন তখন know go-এর সংক্ষিপ্ত রূপ হিসেবে kg ব্যবহার করা হত। কিন্তু মূল শব্দ আসলে know go নয় এটি no go।

১৮৩৯ সালের ২৩ মার্চ বোস্টন মর্নিং পোস্ট সংবাদপত্রে একটি ছাপার ভুল রয়ে যায়। সেদিন দ্বিতীয় কলামের এক কোণায় ভুলক্রমে ছাপা হয় o.k. কিন্তু তখন এধরণের শব্দ ব্যবহারের চল থাকায় এটিকে oll correct-এর প্রতিশব্দ হিসেবে ব্যবহার শুরু হয়। মজার ব্যাপার হল oll correct হচ্ছে all correct-এর অন্য রূপ।  

এ ঘটনার তিনদিন পরে একি সংবাদপত্রে একটি প্রবন্ধে ok শব্দটি ছাপা হয় এবং ১৮৩৯ সালেই শব্দটি ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। এমনকি বছর শেষে এ শব্দ বোস্টন ইভনিং ট্রান্সক্রিপ্টসহ নানা পত্রিকায় ব্যবহার করতে দেখা যায়।

১৮৪০ সালের রাজনৈতিক অঙ্গনে ok শব্দটি ব্যবহারের হিড়িক পড়ে যায় এবং সে বছর অনুষ্ঠিত আমেরিকার সাধারণ নির্বাচনে জনগনের মাঝে এ শব্দের উল্লেখযোগ্য প্রভাব দেখা যায়। পরে ১৮৬৪ সালে এ শব্দ অভিধানে  জায়গা পায়। এভাবে ধীরে ধীরে ok ছড়িয়ে পড়ার  ধারাবাহিকতায় ১৯৬৭ সালে টমাস হ্যারিস I'm ok,Your'e ok নামে একটি বই লেখেন যা পরবর্তীতে বিশ্বের প্রথম সারির বইয়ের তালিকায় জায়গা করে নেয়। 

গোড়াতে শব্দটির উৎপত্তি নিয়ে বেশ বিতর্ক শুরু হয়। কেউ কেউ বলেন এ শব্দের উৎপত্তি একটি জনপ্রিয় আর্মি বিস্কুটের নাম থেকে। আবার কারও মতে এটি এসেছে Old Keokuk নামের একজন ব্যবসায়ীর নাম থেকে। তবে অধিকাংশের মতই, বোস্টন মর্নিং পোস্টের সম্পাদক চার্লস গর্ডন গ্রীনই ok শব্দের মুল প্রবর্তক।

শব্দটির উত্থানের এবং প্রচলনের এই ইতিহাস জানা সম্ভব হয় এলেন ওয়াকার রিড নামের একজন ইংলিশ প্রফেসরের উল্লেখযোগ্য গবেষণার ফলে। এ গবেষণা আমাদের জানিয়েছে আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অবলীলায় ব্যবহৃত ok-এর পেছনে লুকিয়ে থাকা দারুণ  সব তথ্য! 

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • আনুমানিক দুইশ বছরের পুরনো আমগাছ

    ঠাকুরগাঁও জেলায় প্রায় দুই বিঘা জুড়ে আছে একটি আমগাছ। দেখলে মনে হয় বিরাট এক আম বাগান। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, এই মহীরূহের বয়স আনুমানিক দুইশ বছরের কম নয়।

  • ধিক্কার: বঙ্গবন্ধু হত্যার খবরকে অবহেলা করেছিল যারা

    শুধু রাজনীতি নয়, সংবাদপত্রের কাজের সঙ্গেও বঙ্গবন্ধুর সম্পৃক্ততা ছিলো। জীবনের কর্মযজ্ঞে কখনও পত্রিকার মালিক, কখনও সাংবাদিক, কখনও পূর্ব পাকিস্তান প্রতিনিধি, কখনও বা পরিবেশক ছিলেন তিনি। দরকারে হকারিও করেছেন।

  • দৃষ্টিহীনতা দমাতে পারেনি রফিকুলকে

    কুড়িগ্রামের রফিকুল ইসলাম দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও তার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর আবর্জনা রিসাইকেল করে তিনি নিত্য ব্যবহারের জিনিস তৈরি করে বাজারজাত করছেন।