আমার কথা

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক (১৬), ঢাকা

Published: 2017-03-27 20:04:57.0 BdST Updated: 2017-03-27 20:09:00.0 BdST

ফেইসবুকে একটি ইভেন্ট দেখে উপস্থাপনা ও শুদ্ধ উচ্চারণ কর্মশালায় খুব আগ্রহ নিয়ে যোগ দিলাম। এই কর্মশালা বিশ্বসাহিত্যকেন্দ্রের কক্ষে হবে ভেবে খুব ভরসা নিয়ে ভর্তি হলাম। কিন্তু কর্মশালাটি ছিল একটি ফাঁদ, বুঝলাম অনেক পরে।

‘বাংলাদেশ চিল্ড্রেন টিভি রিপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন’ নাম দিয়ে এরা এক হাজার টাকার কোর্স ফিজের বিনিময়ে তিন দিনের কর্মশালা করাবে। বিষয় দুটিতে আগ্রহ ছিল তাই ৫০টাকা দিয়ে ফরম পূরণ করে এক হাজার টাকা দিয়ে নিবন্ধন করে ফেললাম।

ছয়টি ব্যাচে ক্লাস হবে তিন দিন। মূল প্রশিক্ষক হিসেবে থাকবেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রাজীব চৌধুরী কাকাজী।

আমার মতো আরও ৪০জন সভ্য আমার ব্যাচে। এরকম আটটি ব্যাচ। মোট ২৯০ জন সভ্য। সব বয়সের মানুষ থাকলেও, স্কুল, কলেজ ও ইউনিভার্সিটি পড়ুয়ারাই বেশি ছিলেন। রবি, মঙ্গল ও শুক্রবার, এক ঘণ্টা ৪৫ মিনিট করে প্রতিটি ক্লাস হওয়ার কথা থাকলেও গোঁজামিল দিয়ে এক ঘণ্টার মতো ক্লাস হলো।  

এই কর্মশালায় যতটা শিখতে পারবো আশা নিয়ে গেছিলাম তার ছিটেফোঁটাও পেলাম না ক্লাস থেকে। মনে হলো এরা আমাদের ঠকাচ্ছেন। এরা মানে রাজীব চৌধুরী ও তার কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক।

শুক্রবার সব ব্যাচের একসাথে ক্লাস হবে সকাল আটটা থেকে ১০টা। সব ব্যাচের সভ্য একসাথে অপেক্ষা করছি। সনদ দেওয়া হবে সেদিন। আবার জন প্রতি একশ’ টাকা করে নেওয়া হলো। শেষে তারা জানালেন, সনদ দেওয়ার জন্য যে সেলিব্রেটি অতিথিদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল, আসতে পারবেন না।

এদের ক্লাসের নমুনা দেখে আগে এদের কাজে অল্প অল্প সন্দেহ হলেও আজকের ঘটনায় এদের সততা নিয়ে সেই সন্দেহ গাঢ় হয়। এরা যে শঠতার আশ্রয় নিয়ে এই কর্মশালার আয়োজন করেছে সেটা বুঝতে বাকি রইল না। প্রশিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হলো। তার এ ধরণের কর্মশালা করার আইনি যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন করা হলো।

তিনি চাপের মুখে স্বীকার করে নেন, তার অ্যাসোশিয়ানের কোনো ট্রেড লাইসেন্স নাই। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন ভাইয়া রেগে গিয়ে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে কিছু টাকা তার কাছ থেকে বাজেয়াপ্ত করে সভ্যদের ফিরিয়ে দিয়ে একটা রফা করেন। কিন্তু সবাই টাকা ফেরত না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে যান। তবে সব শেষে পুলিশ ও বড়দের হস্তক্ষেপে ঠিকানা ও বাবার নাম জেনে নিয়ে ছেড়ে লোকটিকে দেওয়া হয়।          

এরকম কোনো ভুয়া কর্মশালার ফাঁদে পা দিও না। আগে সব জেনেশুনে তবেই এগিও।  

Print Friendly and PDF

সর্বাধিক পঠিত
  • আনুমানিক দুইশ বছরের পুরনো আমগাছ

    ঠাকুরগাঁও জেলায় প্রায় দুই বিঘা জুড়ে আছে একটি আমগাছ। দেখলে মনে হয় বিরাট এক আম বাগান। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, এই মহীরূহের বয়স আনুমানিক দুইশ বছরের কম নয়।

  • ধিক্কার: বঙ্গবন্ধু হত্যার খবরকে অবহেলা করেছিল যারা

    শুধু রাজনীতি নয়, সংবাদপত্রের কাজের সঙ্গেও বঙ্গবন্ধুর সম্পৃক্ততা ছিলো। জীবনের কর্মযজ্ঞে কখনও পত্রিকার মালিক, কখনও সাংবাদিক, কখনও পূর্ব পাকিস্তান প্রতিনিধি, কখনও বা পরিবেশক ছিলেন তিনি। দরকারে হকারিও করেছেন।

  • দৃষ্টিহীনতা দমাতে পারেনি রফিকুলকে

    কুড়িগ্রামের রফিকুল ইসলাম দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও তার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর আবর্জনা রিসাইকেল করে তিনি নিত্য ব্যবহারের জিনিস তৈরি করে বাজারজাত করছেন।